বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৩৮ অপরাহ্ন

রাত পোহালেই ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন

ইমরান হাসান
  • প্রকাশ বুধবার, ২০ জুলাই, ২০২২
  • ৯২ বার-পাঠিত

ত্রিশাল প্রতিনিধি>দীর্ঘ উনিশ বছর পর বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন।

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে করে ইতোমধ্যে বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভার ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে।এমনকি দীর্ঘদিন দলের কর্মকান্ড থেকে দূরে থাকা নেতাকর্মীরাও অনেকটা সরব।

দোয়া চেয়ে এবং নেতৃত্বের সমর্থনে ত্রিশাল পৌর শহরের মধ্য দিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ককে ঘিরে রোড গেইড, ব্যানার, ফেস্টুন আর বিলবোর্ডে ছেয়ে গেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও পদ-পদবীর সমর্থনে নিজের ছবি দিয়ে স্ট্যাটার্স দিয়েছেন।

বিভিন্ন নেতার অনুসারীরা নিজ নিজ নেতার সমর্থনে ফেসবুকে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্মেলনকে সফল করতে একাধিক মাইকিং বের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ৩ টায় সরকারি নজরুল একাডেমীর মাঠে সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি এডভোকেট মোঃ জহিরুল হক খোকা।

উপজেলা আওয়ামীলীগের আবুল কালামের সঞ্চালনায়,সভাপতিত্ব করবেন ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক, ত্রিশালের সাবেক এমপি এডভোকেট রেজা আলী।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী এমপি ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক বাবু অসীম কুমার উকিল এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সদস্য মারুফা আক্তার পপি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সদস্য মি. রেমন্ড আরেং, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাফেজ রুহুল আমীন মাদানী এমপি।

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল।

অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক আহাম্মদ আলী আকন্দ, জেলার আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট জালাল উদ্দিন খান, জেলার সদস্য এডভোকেট জিয়াউল হক সবুজ।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, সর্বশেষ ২০০৩ সালে ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন সরকার সভাপতি ও আবুল কালাম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ।

পরে আব্দুল মতিন সরকার ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলে সভাপতির পদ শূন্য হয়।

পরে সিনিয়র সহ-সভাপতি হায়দার আলী মাস্টার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এ কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ন্ন হয়ে একটানা ৯ বছর কাটিয়ে দেন।

কমিটিকে কেন্দ্র করে দলের মধ্যে দেখা দেয় দলীয় কোন্দল লবিং-গ্রুপিং। দীর্ঘদিন সম্মেলন না হওয়ায় নতুন কমিটি দাবী করে ৬১ সদস্যের মধ্যে ৫৬ জন পদত্যাগ করেন।

পরে ঐ কমিটি বিলুপ্ত করে ২০১২ সালে সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট রেজা আলীকে আহবায়ক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। আহবায়ক কমিটি গঠন হয়ে তা চলে দশ বছর।

আহবায়ক কমিটির মেয়াদ উত্তির্ণ হয়ে ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগ দুই কমিটির পরিচয় নিয়ে চলছে বহুদিন। দলের নেতাকর্মীর মাঝে সৃষ্টি হয় গ্রুপিংয়ের।

গত ১জুলাই ২০২২ ইং তারিখে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করার পর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সম্মেলন স্থগিত করে দেন। পরবর্তীতে সম্মেলনের নতুন তারিখ ঘোষণা করা হয় ২১জুলাই বৃহস্পতিবার।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ইকবাল হোসেন জানান, উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের আমি একজন সাধারন সম্পাদক প্রার্থী।

রাতের অন্ধকারে কে বা কাহারা আমার শতাধিক ব্যানার কেটে ফেলেছে। যা খুবই দু:খজনক। সম্মেলনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য একটি চক্র সক্রিয় ভাবে কাজ করছে। আমরা শতর্ক হয়ে তাদের প্রতিহত করবো ইনশাআল্লাহ।

জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এডভোকেট জিয়াউল হক সবুজ সম্মেলন প্রস্তুতি সর্ম্পকে বলেন, ২১শে জুলাই বৃহস্পতিবার ত্রিশাল উপজেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। ইতি মধ্যেই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

আশা করি সকল ভেদাভেদ ভুলে নবীন প্রবীনের সমন্নয়ে সুন্দর ও সময় উপযোগী একটা কমিটি গঠিত হবে।

সম্মেলনের প্রস্তুতির কাজ পরিদর্শনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম জানান, দীর্ঘদিন পর সম্মেলন হচ্ছে। তৃণমূলের নেতা কমীরা উজ্জীবিত।

আশা করি ২১ জুলাই তারিখে আমরা একটা সুস্থ্য সুন্দর সম্মেলন ত্রিশালবাসীদের উপহার দিতে পারবো।

সম্মেলনের প্রস্তুতি পরিদর্শনে এমপি মাদানী বলেন, সম্মেলন উপলক্ষ্যে ত্রিশালের নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসব উৎসব ভাব বিরাজ করছে।

আবহওয়া ভালো থাকলে নজরুল একাডেমির মাঠ কানায়কানায় ভরে যাবে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা যাকে যোগ্য মনে করবেন তাকেই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব দিবেন।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD