1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
দেশের সাক্ষরতার হার ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশ-প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন - দৈনিক দেশেরকথা
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহে আশ্রয়ণ বাসিন্দার শিশুদের মাঝে ডিম খাওয়ানো উৎসব  কিশোরগঞ্জে গ্রেনেড, মাইন্ড ও থ্রি-নটথ্রি রাইফেল উদ্ধার কিশোরগঞ্জে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহে আশ্রয়ণ বাসিন্দার শিশুদের মাঝে ডিম খাওয়ানো উৎসব  রাঙ্গুনিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনার চুয়েটের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু  জলবায়ু পরিবর্তনে ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের বিদায় সম্বর্ধনা  স্ত্রীর কাপড় না আনায় বকুনি স্বামীর পিটুনিতে প্রাণ গেল গায়ত্রীর তীব্র তাপদাহে বশেমুরবিপ্রবিতে ভার্চুয়ালি ক্লাস, বন্ধ থাকবে সকল পরিক্ষা!! জনপ্রিয় অভিনেতা অলিউল হক রুমি আর নেই আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস

দেশের সাক্ষরতার হার ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশ-প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশ বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২

 138 বার পঠিত

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন দাবি করেছেন দেশের জনসংখ্যা মোট অনুপাতে সাক্ষরতার হার ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশ । আগামীকাল ৮ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস উপলক্ষে বুধবার দুপুরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি।

মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এবারের আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবসের প্রতিপাদ্য ‘সাক্ষরতায় শিখন ক্ষেত্রের প্রসার’। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর সহযোগিতায় দেশব্যাপি সাক্ষরতা দিবস পালন করা হবে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকারের নানা কর্মকান্ডের কারণে সাক্ষরাতার হার দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিন্তু এখনো প্রায় ২৪ দশমিক ৪ শতাংশ নিরক্ষর। তাদের সাক্ষর করতে না পারলে আমাদের কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন সম্ভব নয়।এজন্য উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর ক্ষমতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। নানা কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশে নিরক্ষর মানুষ রাখা হবে না। সাক্ষরতার কোনো বিকল্প নেই। ২০৩০ খ্রিষ্টাব্দের মধ্যে বাংলাদেশে নিরক্ষর মানুষ থাকবে না বলে জানান তিনি।

জাকির হোসেন আরো জানান , এখানো যে ২৪ দশমিক ৪ শতাংশ মানুষ সাক্ষরতার বাইরে আছে তাদের সাক্ষরতার আওতায় আনতে নানা ধরনের কর্মসূচি হাতে নেয়া হচ্ছে। গত কয়েক বছরে দেশের ৬৪ জেলার নির্বাচিত ২৪৮টি উপজেলার ১৫ থেকে ৪৫ বয়সী ৪৪ লাখ ৬০ হাজার নিরক্ষরকে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মাধ্যমে মৌলিক সাক্ষরতা জ্ঞান দেয়া হয়েছে। গত ৩০ জুলাই এ কার্যক্রম শেষ হয়েছে।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) প্রথম ডিজিটাল ‘জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুসারে দেশে সাক্ষরতার হার ৭৪ দশমিক ৬৬ শতাংশ। আর দেশে বর্তমান মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। সে হিসেবে দেশের ৪ কোটি ১৯ লাখের বেশি মানুষ এখনো নিরক্ষর।

বিভাগওয়ারী ফল পর্যালোচনায় দেখা গেছে,

  1. ঢাকা বিভাগে সাক্ষরতার হার ৭৮ দশমিক ০৯ শতাংশ।
  2. বরিশাল বিভাগে সাক্ষরতার হার ৭৭ দশমিক ৫৭ শতাংশ।
  3. চট্টগ্রাম বিভাগে সাক্ষরতার হার ৭৬ দশমিক ৫৩ শতাংশ।
  4. খুলনা বিভাগে সাক্ষরতার হার ৭৫ দশমিক ০২ শতাংশ।
  5. সিলেট বিভাগে সাক্ষরতার হার ৭১ দশমিক ৯২ শতাংশ।
  6. রাজশাহী বিভাগে সাক্ষরতার হার ৭১ দশমিক ৯১ শতাংশ।
  7. রংপুর বিভাগে সাক্ষরতার হার ৭০ দশমিক ৭৫ শতাংশ ।
  8. ময়মনসিংহ বিভাগে সাক্ষরতার হার ৬৭ দশমিক ০৯ শতাংশ ।

গনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর প্রাথমিক প্রতিবেদন পর্যালোচনায় দেখা যায় বাংলাদেশে মোট সাক্ষরতার হার,

পল্লী এলাকায় ৭১ দশমিক ৫৬ শতাংশ এবং শহর এলাকায় ৮১ দশমিক ২৮ শতাংশ।
যালিঙ্গভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা যায় পুরুষের সাক্ষরতার হার ৭৬ দশমিক ৫৬ শতাংশ, মহিলাদের সাক্ষরতার হার ৭২ দশমিক ৮২ এবং তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিকদের সাক্ষরতার হার ৫৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ।
মোট (পুরুষ ও মহিলা) সাক্ষরতার সর্বোচ্চ হার ঢাকা বিভাগে ৭৮ দশমিক ০৯ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন হার ময়মনসিংহ বিভাগে ৬৭ দশমিক ০৯ শতাংশ।

২০১১ খ্রিষ্টাব্দে মোট (পুরুষ ও মহিলা) সাক্ষাতার হার ছিল ৫১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

বিভাগভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০১১ খ্রিষ্টাব্দে বরিশাল বিভাগে সর্বোচ্চ ৫৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ এবং সিলেট বিভাগে সর্বনিম্ন ৪৫ দশমিক ০১ শতাংশ সাক্ষরতার হার ছিল

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জনশুমারি ও গৃহগণনায় এ চিত্র উঠে এসেছে। গত ১১ বছরে সাক্ষরতার হার অনেকটাই বেড়েছে। ২০১১ খ্রিষ্টাব্দে দেশের মোট সাক্ষরতার হার ছিলো ৫১ দশমিক ৭৭ শতাংশ। যা বেড়ে ২০২২ খ্রিষ্টাব্দে হয়েছে ৭৪ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park