1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
  3. mdtanjilsarder@gmail.com : Tanjil News : Tanjil Sarder
শীতের আগমন: বাড়ছে শীত! বাড়ছে পুরাতন শীতবস্ত্রের চাহিদা - দৈনিক দেশেরকথা
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সেনা সদর দপ্তর, তেলিয়াপাড়া গৌরব গাঁথা তেলিয়াপাড়া ঝালকাঠিতে ১০ দফা নিয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো নৌযান শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ইবিতে অংশীজনদের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত  হাইকোর্টে অ্যাড. কাওসার হোসাইনের রিট :পরিবেশের ছাড়পত্রহীন ডাইং এবং ওয়াশিং কারখানাগুলোর বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ ঝালকাঠিতে তথ্য অফিসের আয়োজনে কমিউনিটি ডায়ালগ অনুষ্ঠিত ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-মা ও মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু দৈনিক রাজবাড়ী সময় সম্পাদক পেলেন সেরা পাঁচ সম্মাননা ২০২২ জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন  সুন্দরগঞ্জ বাজার দোকান মালিক সমিতির নির্বাচনে-সভাপতি-মিজান, সম্পাদক-লেলিন বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করলে লাঠি মিছিল হবে :মোমিন মেহেদী

শীতের আগমন: বাড়ছে শীত! বাড়ছে পুরাতন শীতবস্ত্রের চাহিদা

আসিফ জামান
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ২ নভেম্বর, ২০২১

 22 বার পঠিত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি>বলা হয় উত্তরের জনপদ ‘হামার ঠাকুরগাঁও’ শীত আসতেই না আসতে ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষের মাঝে শীতের হাওয়া বইতে শুরু করেছে।

‘মাঘের শীত বাঘের গায়ে’ যদি ও মাঘ মাস এখনও দুমাস বাকী। মাঘ মাসে শীতের তীব্রতা এত বেশী থাকে যে বাঘও কাবু হয়ে যায়। তবে গত ২০ অক্টোবর থেকে উত্তরের জনপদ ঠাকুরগাঁওয়ে সন্ধ্যা হলেই শীত কিছুটা জেঁকে বসেছে।

তবে বিকেল বেলা পর্যন্ত সূর্য থাকছে। সূর্য পশ্চিম আকাশে হেলে পড়তেই চারদিক কুয়াশায় ঢেকে যাচ্ছে। আর শীতের তীব্রতা বৃদ্ধির সাথে বাড়ছে শীত পোশাকের কদর। শীতার্ত ছিন্নমূল্য, দরিদ্র ও নিম্ন এবং মধ্যআয়ের মানুষ ফুটপাত বা খোলাজায়গায় শীত পোশাকের দোকান গুলোতে ভীড় করছে।

প্রকৃতিতে শীতের আগমন বার্তা শুরু হয়েছে। সে অনুযায়ী প্রস্তুতিও নিয়েছিলেন ব্যবসায়ীরা। ঠান্ডা বাতাসের সঙ্গে হু হু করে বেড়ে গেছে শীতের পোশাকের কদর। সরজমিনে ঠাকুরগাঁও জেলা স্কুল বড় মাঠের উত্তর পশ্চিম ফুটপাতের দোকান ও ঠাকুরগাঁও পৌরসভার হকার মার্কেটে গিয়ে দেখা গেছে পুরাতন শীতের পোশাকের দোকান গুলো ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়।

তবে বিলাসবহুল পোশাকের দোকান গুলোতে বিক্রি কম হলেও ফুটপাতের দোকানগুলোতে এখন শীতবস্ত্রের চাহিদা অনেক বেশি। শীত মৌসুমকে ঘিরে চাহিদানুযায়ী সরবরাহে কয়েক মাস আগে থেকেই ব্যবসায়ীরা পোশাক মজুদ করেছেন। বিশেষ করে ফুটপাতগুলোতে বিক্রেতাদের হাঁক-ডাক আর ক্রেতাদের ভিড়ে জম্পেশ (জমজমাট)  পরিবেশ তৈরি হয়েছে। দেইখ্যা লন, বাইছ্যা লন, ‘একদাম’, ‘এক রেট’, একশ, ‘দেড়শ’ টাকা।

বিভিন্ন বাজার গুলোতে ঘুরে দেখা গেছে, কানটুপি, মাফলার, হাত-পায়ের মোজা, গায়ের সোয়েটার, জ্যাকেট ইত্যাদি পোশাকে সয়লাব হয়ে গেছে দোকানগুলো। ফুটপাতের দোকানগুলোতে শীতবস্ত্রের পাশাপাশি কম্বল ও জ্যাকেট  বিক্রি হচ্ছে। অনেক দোকানে পোশাক সরিয়ে শুধু কম্বল ও জ্যাকেট সাজানো হয়েছে।

ফুটপাতের অস্থায়ী দোকানদার খোকন বলেন, গত বছরের তুলনায় এ বছর শীত বস্ত্রের দাম বেশী হলেও এবার শীত বেশী পড়বে বিধায় ক্রেতারা শীতবস্ত্র আগে ভাগেই কিনে রাখছে। দাম বেশী হলেও শীতের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য কম বেশী সবাই শীতবস্ত্র কিনছে। আর এর জন্য ধনী, মধ্যবিত্ত ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা ছুটছে ফুটপাতের অস্থায়ী গরম কাপড়ের দোকানগুলিতে। এখানে কাপড়ের প্রকার ভেদে মূল্য কম বেশী নির্ধারণ করা থাকলেও অসহায় মানুষেরা এখান থেকে গরম কাপড় সংগ্রহ করছেন।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park