1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : Daynik Kotha : Daynik Kotha
  3. mdtanjilsarder@gmail.com : Tanjil News : Tanjil Sarder
যেন পেয়েছি এক সোনার হরিণ  - দৈনিক দেশেরকথা
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভৈরবপাশা ইউনিয়নে যুবলীগের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত আমির হোসেন আমু এমপি পিরোজপুরে মাদ্রাসার ভেতরে ঢুকে সহ সুপারকে মেরে রক্তাক্ত আহত করেছে প্রতিপক্ষ জামালপুর জেলা এনডিএমের এর ত্রি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত মাধবপুরে হাওর বন পাহাড় টিলা নদী সবই আছে নেই শুধু পর্যটন কেন্দ্র ঝালকাঠিতে আমুয়া বন্দর বাজারে আগুনে পুড়ে ছাই সাত দোকান সরকারি ভবন ভেঙ্গে পড়ার আশঙ্কায় আতংকিত এলাকাবাসী কিশোরগঞ্জে কবিরাজি চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু, আটক ৩ কবিরাজ রাজাপুরে মা ইলিশ সংরক্ষণে জনসচেতনতা সভা লক্ষ্মীপুরে তিন বছর পর কবর থেকে এক কিশোরীর লাশ উত্তোলন জামালপুর রাস্তা অবরোধ করেছে ট্রাক শ্রমিকরা

যেন পেয়েছি এক সোনার হরিণ 

রিদুয়ান ইসলাম
  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

 11 বার পঠিত

শিক্ষা জীবনে প্রায় প্রতিটি শিক্ষার্থীর মনেই স্বপ্ন জাগে একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাদ গ্রহণের। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের সময় থেকেই রঙিন স্বপ্নকে মনের মধ্যে লালিত করতে থাকে তারা। তবে বিভিন্ন পারিপার্শ্বিক কারণে সেই স্বাদ গ্রহণের সুযোগ হয়না সবার। অনেকে আবার কঠোর পরিশ্রম করেও ভাগ্যের পরিহাসে স্বপ্নের ক্যাম্পাসে পদচারণা করতে পারে না। তবে তাদের মধ্যে যারা একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের খাতায় নাম লেখাতে পারে নিঃসন্দেহে তাদের ভাগ্যবান বলা চলে৷ এই বছর ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়ে শিক্ষার্থীদের অনুভূতি কেমন! তাদের ভবিষ্যত চিন্তা ভাবনা কী এসব তুলে ধরেছেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক রিদুয়ান ইসলাম।

স্বপ্ন যখন বাস্তব রুপে

এমন শিক্ষার্থী দুষ্প্রাপ্য যে চায় না পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে! আমিও তার ব্যতিক্রম নই, কলেজে যাওয়া আসার পথে যখন দেখতাম দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর লাল, সাদা বাস গুলো যাচ্ছে তখন খুব করে নিজের মধ্যে একটা সংকল্প তৈরী করি যে না আমাকে এই বাসে চড়তে হবে, আমাকেও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে হবে! তখনকার বুনা স্বপ্ন আজ বাস্তব রুপে আমার দারপ্রান্তে! আজ আমি জবিয়ান! আমি শুনতে পাই এটি আবেগের উৎফুল্লের, উৎকন্ঠার এবং গৌরবের যা তুৃমি অর্জন করেছো যা তুমি ছুঁতে পেরেছো।আমি সেই সোনালী দিনের অপেক্ষায় যেদিন আমার বিশ্ববিদ্যালয় শুধু দেশ নয় বরং বিশ্ব মঞ্চে অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি হবে! সেই লক্ষে আমি কাজ করে যেতে চাই আমার শ্রদ্ধেয় সিনিয়র এবং অনাগত স্নেহের জুনিয়রদের হাত ধরে!

daynikdesherkotha

মুশফিকুর রহমান
মার্কেটিং ডিপার্টমেন্ট

যেন পেয়েছি এক সোনার হরিণ 

ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়া কালীন সময়ের সকল পরিশ্রম পূর্ণতা পেয়েছে একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স হওয়ার পর। যেদিন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিট লিস্ট প্রকাশিত হয়, সেদিন আমার জীবনের অন্যতম স্মরণীয় একটি দিন। এক অদ্ভুত প্রশান্তি যেন আমাকে চারদিক থেকে ঘিরে ধরলো। বাবা-মা, শিক্ষক ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের মুখে গর্বের হাসি দেখে আমার উচ্ছ্বাস ও অনুপ্রেরণা বহুগুণ বেড়ে গেল। সর্বদাই আমার দেশের উন্নতি ও মানুষের প্রগতির জন্য কাজ করার সদিচ্ছা ছিল তবে সেই স্পৃহাটা এখন তেজী ঘোড়ার মতো ছুটছে। আমি নিজের মেধা ও শ্রমকে দেশের সমৃদ্ধি সাধনে ও মানুষের কষ্ট লাঘবে নিবেদন করতে চাই। সকল প্রতিবন্ধকতাকে দূর করে সুন্দর আগামী গড়তে চাই।

daynikdesherkotha

নাসরুম ফাতেহা ঐশী
আইন বিভাগ

সাংস্কৃতিক অঙ্গনে মননশীলতার বিস্তৃতি ঘটাতে চাই

প্রথমেই শুকরিয়া আদায় করছি মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে, যাঁর অশেষ কৃপায় দেশের প্রথম সারির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পেয়েছি। পরিশ্রমী কিন্তু নিঃস্ব পথিক, রাজ্যসহ রাজসিংহাসন পেলে তার যেমন অনুভূতি হয়; তাঁর চেয়েও শত সহস্র গুণ ভালো লাগা কাজ করে একজন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর হতে পেরে। আমার সামনের পরিকল্পনা মূলত এরকম যে, আমি একাডেমিক পড়াশোনা ঠিক রেখে কিছু সামাজিক উন্নয়নমূলক অলাভজনক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত হতে চাই, সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হয়ে নিজের মননশীলতাকে সবার মাঝে তুলে ধরতে চাই।
সর্বোপরি, সকলের দোয়া ভালোবাসায় অলখ_বিহারীর মতো এগিয়ে যাইতে চাই দৃষ্টির সীমানার বাহিরে, ছিনিয়ে আনতে চাই সকলের হৃদয়ের ভালোবাসা, নিজের ব্যবহার ও কর্মের মাধ্যমে।

daynikdesherkotha

মো. মামুন হোসেন
দর্শন বিভাগ

জবি দিয়েছে আমায় পরিশ্রমের সার্থকতা

গ্রামের মেঠো পথ বেয়ে পুরান ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থান করে নিয়ে দৃঢ় প্রত্যয়, গ্রামের মায়া ছেড়ে তোমার কাছে আশার কারনে একটা পদবী দিও বাড়ি ফিরে যেন অন্তত নিজের পরিচয়ের শেষে জুরে দিতে পারি। করোনার মাঝে এই দুর্বিষহ দিনগুলো পারি দিয়ে এডমিশন প্রস্তুতি তারপর আবার কতোই না বাধা পেরুতে হয়েছে। গ্রাম থেকে শহরে গিয়ে প্রস্তুতি নিয়ে স্বপ্ন ধরার চেষ্টা। অবশেষে একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় দখলে। নতুন বছরে জবির সঙ্গে পরিচয় হয়ে আমার প্রত্যাশা গ্রাম থেকে মেধাবী মুখগুলো যেন তাদের স্বপ্নসিড়ির গন্তব্যস্থানে পৌঁছাতে পারে। দিনশেষে তারা যেন স্বার্থক হয়ে বাড়ি ফেরে। পরিশ্রম গুলোও যেন সার্থক হয় এবং বাবা মার গর্বের কারণ হতে পারে।

আবু সুফিয়ান সরকার
সমাজকর্ম বিভাগ

অনুভূতির জাগরণ সমৃদ্ধির পথে

একসময় যাকে নিয়ে সবাই হাসাহাসি করতো, মজা করতো, কে জানতো সেই অধম সুমন হয়ে উঠবে দেশের সুনামধন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এর ছাত্র! এ অনুভূতি প্রকাশ করার মতো নয়। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এমন এক জায়গা যা একজন ছাত্রকে জীবনে সফল হতে একধাপ এগিয়ে নিয়ে দেয়। অবশ্য পাবলিকে চান্স পাওয়ার পূর্ব সময়টা ছিল অনেক প্রতীক্ষাময়, রাত জাগা যেন এক রুটিন, রাতের পর রাত দিনের পর দিন পড়ালেখা করা। বর্তমানে আমি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগের একজন ছাত্র, ইচ্ছা আছে ভবিষ্যতে জজ কিংবা ম্যাজিস্ট্রেট হওয়ার। আশা করি এই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আমাকে আমার স্বপ্ন পুরনে সাহায্য করবে। আমার স্বপ্ন পূরণে সবার কাছে দোয়া চাই৷

daynikdesherkotha

মো. সুমন
আইন বিভাগ

বাস্তবের স্পর্শে আলোকিত একটুকরো স্বপ্ন

পাবলিকিয়ান কে না হতে চায়! আমারও স্বপ্ন ছিলো পাবলিকিয়ান হিসেবে এই সম্মানের খাতায় নাম লেখানোর। আর আমার এই স্বপ্নদ্রষ্টা আমার মামি। মামির কাছেই পাবলিকিয়ানদের গল্প শুনতাম। কষ্ট আর সফলতার গল্প। গল্পের আদলেই আমার মনে রঙিন স্বপ্নের উদয় হয়েছিল। তারপর থেকেই আমার স্বপ্ন পূরণের অপেক্ষায় ছিলাম। পড়াশোনার প্রতি মনযোগ বাড়িয়ে দিয়েছিলাম। আলহামদুলিল্লাহ আজ আমি গর্বিত জবিয়ান। আমি সেই সোনালি দিনের স্বপ্ন দেখি যেদিন আমার জবি শুধু দেশসেরা নয় বরং বিশ্বমঞ্চে মাথা তুলে দাঁড়াবে। আমি সেই সোনালি দিনের সাক্ষী হতে চাই। আমি ক্যাম্পাসের দেয়ালে স্বপ্নিল ১৬ হিসেবে আলোকিত হতে চাই। আমি যেনো  দেশ এবং এই  স্বপ্নেঘেরা প্রাঙ্গণকে নিজের সর্বোচ্চটা দিতে পারি এটাই আমার প্রত্যাশা।

daynikdesherkotha

ওয়াফা সারতাজ
রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ

পরিশ্রম যেখানে সার্থক

স্কুল পেরিয়ে কলেজে ভর্তির পরেই স্বপ্ন জাগে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের। সেই সাথে একটি স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে যোজন৷ তারপর থেকেই শুরু হয় পড়াশোনার প্রতি প্রবল আবেগ। বাড়িয়ে দিলাম মনযোগ। অনেক চেষ্টা-প্রচেষ্টার পর, মা-বাবার দোয়ায়, শিক্ষকদের অনুপ্রেরণায় ও নিজের পরিশ্রমের ফল হিসাবে সুযোগ পেলাম স্বনামধন্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নের সুযোগ। যেদিন এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পেয়েছিলাম, সেদিনের অনুভূতি বলে প্রকাশ করার মতো নয়। উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের এই সুযোগ পেয়ে এখন আমার স্বপ্ন আরো বেড়ে গেলো। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভালোভাবে পড়াশোনা করে দেশের ও দেশের মানুষের জন্য কাজ করাই এখন আমরা লক্ষ্য। তার জন্য সবার কাছে দোয়া প্রত্যাশি।

daynikdesherkotha

আঁখি আক্তার বন্যা
ইতিহাস বিভাগ

নতুন স্বপ্ন বুনেছি জগন্নাথে এসে

ছোট বেলা থেকে আশেপাশের ভাই আপুদের কাছে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার আনন্দ কেমন তা শুনে আসছিলাম। আর মনে মনে ভাবতাম আমিও কবে একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হবো? জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) আমাকে দিয়েছে স্বপ্ন দেখার সুযোগ, যে স্বপ্ন গুলো মনে মনে এতদিন লালন করেছি তা বাস্তবে রুপদান করার এইতো সুযোগ, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের চান্স পাওয়া একটি স্বপ্নের মতো তা আজ বাস্তব হয়েছে, বড় ভাইয়া আপুদের পাবলিকে পড়ার কারণে তাদের জীবন কতটা সুন্দর আর গোছালো দেখছি, তা যে ভবিষ্যতে আমার মাঝেও হবে তা ভেবে আনন্দ লাগছে। নিজেকে গুছিয়ে নতুন স্বপ্ন নিয়ে এখন জবির বুকে হাটতে চাই।

daynikdesherkotha

মোঃ সাকিবুল ইসলাম

সমাজকর্ম বিভাগ

স্বপ্ন যেখানে নিশ্চিত

উচ্চ মাধ্যমিকের পরে সবার স্বপ্ন থাকে একটা মানসম্মত বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হওয়া। আর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবার পর অধিকাংশেরই স্বপ্ন থাকে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার, অনেকের স্বপ্ন থাকে ভালো রেজাল্ট করে উচ্চ শিক্ষা অর্জন করা। আমার যে এমন কোন ইচ্ছা নেই এমন টা নয়। কিন্তু আমার ভবিষ্যতের মূল ইচ্ছা হচ্ছে মানুষের মতো মানুষ হয়ে, সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বের হওয়া। যাতে ভবিষ্যতে যারা এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে আগ্রহ প্রকাশ করবে, তাদের আগ্রহ যাতে আমাকে দেখে আরো বেড়ে যায়। আমি চাই খুব ভালো রেজাল্ট করে বিশ্ববিদ্যালয় এর সম্মান রক্ষা করতে এবং নিজেকে দেশের জন্য বিলিয়ে দিতে। জবি ও যেনো আমাকে আমার এই লক্ষ্য অর্জনে সাহায্য করে এই আশাই করি এবং সকলের দোয়া প্রার্থী।

daynikdesherkotha

উদ্দীপ দে
হিসাববিজ্ঞান বিভাগ

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park