1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
মাধবপুর তেলিপাড়া নোয়াহাটি সিমনাছরা ব্রীজ ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ চরমে। - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৪:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বেইলি রোডসহ সব আবাসিক স্থাপনায় রেস্টুরেন্ট বন্ধ চেয়ে রিট মহিপুর মৎস্য আড়ৎ পট্টিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে,ফায়ার ফাইটারের মাথায় আঘাত গাইবান্ধার কাবিলের বাজার মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত। বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল আর নেই মেলায় ৬০ কোটি টাকার বই বিক্রি ডিসি সম্মেলন শুরু কাল কাল থেকে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৬৩ টাকায় বিক্রি হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির মামলা, চলবে নিউইয়র্ক আদালতে সশস্ত্র  বাহিনী শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে: প্রধানমন্ত্রী গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ, হত্যা না আত্মহত্যা

মাধবপুর তেলিপাড়া নোয়াহাটি সিমনাছরা ব্রীজ ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ চরমে।

লিটন পাঠান
  • প্রকাশ শনিবার, ২১ মে, ২০২২

 94 বার পঠিত

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি>জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাধ্য হয়ে মই বেয়ে উঠে নির্মাণাধীন সেতু দিয়ে চলাচল করছে হাজার হাজার মানুষ, হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত নির্মাণাধীন সিমনাছড়া সেতুর বিকল্প রাস্তাটি (ডাইভারশন) সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

গত কয়েক দিনের বৃষ্টিতে তৈরি হওয়া পাহাড়ি ঢলে তেলিয়াপাড়া নোয়াহাটি মনতলা জেলা পরিষদ সড়কেৱ জালুয়া বাদে অবস্থিত এ বিকল্প (সড়ক-সেতুটি) সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত গদীশপুর ধর্মঘর আঞ্চলিক সড়কের কৃষ্ণপুুর এলাকায় নির্মাণাধীন ব্রীজের বিকল্প কাঠের ব্রীজ ভেঙ্গে পড়ায় দক্ষিন মাধবপুরের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে যার ফলে এ আঞ্চলিক সড়কে এখন সরাসরি কোন যানচলাচল করতে পারছেনা। 

যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় ৩টি ইউনিয়নের সাধারন যাত্রীরা চরম ভোগান্তির মধ্যে পড়েছেন। সাধারন মানুষ নির্মাণাধীন ব্রীজ দিয়ে পায়ে হেটে ঝুকি নিয়ে ব্রীজ পার হচ্ছে। সূত্রে জানা যায়-২০২০ সালে এপ্রিল মাসে এলজিইডি প্রায় ২ কোটি ১২ লক্ষ টাকা ব্যয় ধরে ওই ব্রীজটি সর্মাণ করার জন্য টেন্ডার আহবান করে।

হাসান এন্টাপ্রাইজ ব্রীজটির ঠিকাদার নির্বাচিত হওয়ার পর পুরাতন ব্রীজটি ভেঙ্গে জন সাধারন চলাচলের জন্য নাম সর্বস্ব কাঠের একটি ব্রীজ নিমার্ণ করে। ব্রীজটির নির্মাণ কাজ ২০২১ সালের জুনে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ঠিকাদার সঠিক সময়ে না করে সময় বর্ধিত করতে থাকে বর্তমানে ব্রীজের মাত্র ৬০ ভাগ কাজ সর্ম্পূন হয়েছে।

যানবাহনের চালকরা জানান পুরাতন ব্রীজ ভেঙ্গে নতুন ব্রীজের নির্মাণ কাজ শুরু হয় বিকল্প রাস্তায় চলাচলের জন্য কাঠের একটি বিকল্প ব্রীজ তৈরি করা হয়। কিন্তু এটি দিয়ে শুধু তিন চাকার হালকা ছোট যানবাহন চলাচল করত।

কিন্তু গত ৩/৪দিন হঠ্যাৎ ভারি বষর্ণে বিকল্প কাঠের ব্রিজটি পানির তোড়ে ভেসে গেছে এই ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ায় এই আঞ্চলিক সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাল বন্ধ হয়ে গেছে। এখন নিমার্ণাধীন ব্রীজ দিয়ে সাধারন মানুষ অতি ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে বহরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আলাউদ্দিন জানান।

বিকল্প ব্রীজটি বড় ও মজবুত করে তৈরি করলে পানির ধাক্কায় সহজেই ভেসে যেত না নামে মাত্র একটি বিকল্প কাঠের ব্রীজ তৈরি করা হয়েছিল যা শুরুতেই ছিল নড়বড়ে।

মূল ব্রীজ তৈরি করতে আরো অনেক সময় প্রয়োজন তাই অতি দ্রুত বিকল্প ব্রীজ তৈরি করতে কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি করা হয়েছে মাধবপুর উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ শাহআলম ভ’ইয়া জানান, ভারি বর্ষনের কারণে বিকল্প ব্রীজ টি ধসে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে দ্রুত বিকল্প ব্রীজ তৈরি সহ মূল ব্রীজের নির্মাণ কাজ শেষ করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park