1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
মাধবপুরে এক নারী গার্মেন্টস কর্মীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। - দৈনিক দেশেরকথা
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে গ্রাম উন্নয়ন কমিটির দক্ষতা বৃদ্ধি বিষয়ক ২দিনের প্রশিক্ষণ  একুশে ফেব্রুয়ারিতে ৯ নং ক্রিকেট ক্লাব কর্তৃক আয়োজিত টুর্নামেন্টের ৮ম আসর অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়িতে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস  আজ একুশে ফেব্রুয়ারি, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর গভীর শ্রদ্ধা খাগড়াছড়িতে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে নাগরিক সংবর্ধনা হারিয়ে যেতে বসেছে আবহমান বাংলার চিরচেনা রক্তলাল শিমুল গাছ পাবনায় ডিবির অভিযানে ২৫০০ পিচ ইয়াবাসহ গ্রেফতার ২ গলাচিপায় অমর একুশে বইমেলা-২৪ শুভ উদ্বোধন ও আলোচনা সভা। জার্মানির মিউনিখ সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেছেন শেখ হাসিনা

মাধবপুরে এক নারী গার্মেন্টস কর্মীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

লিটন পাঠান
  • প্রকাশ রবিবার, ১৫ মে, ২০২২

 100 বার পঠিত

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি>হবিগঞ্জের মাধবপুর সিমা আক্তার নামে এক গার্মেন্টস কর্মীর লাশ উদ্ধার করেছে রবিবার (১৫-মে) সকালে মাধবপুর থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করেছে এলাকা সূত্রে জানা যায় মাধবপুর উপজেলা চৌমুহনী ইউনিয়নের হরিণখোলা গ্রামের ইয়াকুব আলীর মেয়ে গার্মেন্টস কর্মী সিমা আক্তার এর সঙ্গে দিনাজপুর এলাকার পিড়ির বন্দর উপজেলার সাইদুল ইসলামের ছেলে আসাদ উল্লাহর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

কিন্তু আসাদ উল্লাহর পরিবার তাদের এই প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিচ্ছিল না এবং সিমা আক্তার নোয়াপাড়া ইউনিয়নের কড়রা গ্রামের একটি ভাড়া বাসায় থাকত, রবিবার সকালে বাড়ির লোকজন সিমার ঘরের দরজা বন্ধ থাকতে দেখে ঘরের দরজা ভেঙ্গে সিমার দেহ ঝুলন্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা সদর হাসপাতলে নিয়ে আসলে কতৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

চৌমুহনী ইউনিয়নের হরিণখোলা গ্রামের ইউপি সদস্য জামাল উদ্দিন জানান, হরিণখোলা গ্রামের ইয়াকুব আলীর মেয়ে সিমা আক্তার নোয়াপাড়া একটি গার্মেন্টসে চাকুরি করতনোয়াপাড়া কড়রা গ্রামে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে থাকত সিমার সঙ্গে দিনাজপুর এলাকার সাইদুল ইসলামের ছেলে আসাদ উল্লাহ গালিব এর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তাদের প্রেমের সম্পর্ক আসাদ উল্লাহর পরিবারের মেনে নিতে পারছিল না হয়ত আসাদ উল্লাহর পরিবারের লোকজন সীমা কে হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখেছে বলে মন্তব্য স্বজনদের।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক জানান, সীমার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে ময়না তদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park