1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
বিরামপুরে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে উজ্জ্বল নক্ষত্র লাবিবা - দৈনিক দেশেরকথা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৭:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চট্টগ্রামের চিনির মিলে আগুন ৪৯৩ জনকে নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ রেলওয়ে আমতলী পৌর নির্বাচনে গুন্ডা,হুন্ডা,পান্ডা রাস্তায় থাকবেনা:নির্বাচন কমিশনার আহসান হাবিব তালতলীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযানে তিন ব্যবসা প্রতিস্ঠানকে জরিমানা সদরপুরে জাটকা নিধন চলছে ইবির জিয়া মোড়ে নেই শৃঙ্খলা, গতিরোধক নির্মাণের দাবি শিক্ষার্থীদের বিজিবিকে বিশ্বমানের একটি আধুনিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই : প্রধানমন্ত্রী আজ বিজিবি দিবস, ৭২ জনকে পদক দিবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গাইবান্ধায় ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী ২ যুবক নিহত। অবৈধ হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করতে ডিসিদের সহায়তা চাইলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিরামপুরে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে উজ্জ্বল নক্ষত্র লাবিবা

নয়ন হাসান
  • প্রকাশ সোমবার, ৪ জুলাই, ২০২২
desherkotha

 101 বার পঠিত


বিরামপুর প্রতিনিধি>সাংস্কৃতিক মঞ্চ মাতিয়ে নিজ প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে দর্শকদের দৃষ্টি ও মনে স্থান করে নিয়েছে স্কুল পড়ুয়া তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী লাবিবা। পুরো নাম তার তানিসা জান্নাত লাবিবা।
বিরামপুরে মেডিকেল রিপ্রেন্টেটিভ কর্মরত হিসেবে কর্মরত তমিজ উদ্দিন ও গবীরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আর্জিনা খাতুন লিপি’র একমাত্র মেয়ে।

লাবিবার বিষয়ে কথা বললে লাবিবার মা আর্জিনা খাতুন লিপি জানান, ছোটবেলা থেকেই লাবিবা’র নাচের প্রতি বেশ ঝোঁক ও আগ্রহ ছিল বেশি। ছোটবেলা থেকেই সে জড়তাহীন ভাবে যে কোন সময় গানের সাথে নাচতো।

লাবিবার আগ্রহে পিছু টানেনি আমরা। আর এই উদারতার মূল্যও দিতে শিখেছে লাবিবা। বর্তমানে সে বিরামপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির অধ্যয়নরত ছাত্রী। তবে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণিতে পড়ার সময়ই সে নাচে উপজেলা পর্যায়ে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। এরপর একের পর এক পুরস্কার লাবিবাকে উৎসাহ জাগিয়ে সাফল্যের পথে নিয়ে গেছে। 

তিনি আরো বলেন, গত ২০২১ সালে জাতীয় শিশু পুরুস্কার প্রতিযোগিতায় মনিপুরী নৃত্য ও লোক নৃত্যে সে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। ২০২২ সালে জাতীয় শিশু দিবসের অনুষ্ঠানে দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক এমপি’র উপস্থিতিতে মঞ্চে সে পরীবানু গানের সাথে নৃত্য পরিবেশন করে সকলের দৃষ্টি আকর্ষন করে এবং সকলের মন জয় করে নেয়।

নাচের পাশাপাশি লেখাপড়ায়ও সে মেধার স্বাক্ষর ধরে রেখেছে। কোমলমতি লাবিবা ছোটবেলা থেকেই অসহায় মানুষদের প্রতি দয়াশীল। তার টিফিনের টাকা ও রিক্সা ভাড়ার টাকা খরচ না করে ভিক্ষুকদের দান করে থাকে।

বয়স্ক ভিক্ষুকদের দাদু ও দাদীমা বলে সম্বোধন করে তাদের মনকে বিগলিত করে তোলে। লাবিবা ভবিষ্যতে লেখাপড়া শিখে মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে চায়। লাবিবা জীবনে উত্তরোত্তর সাফল্য ও সদিচ্ছা পুরণে সকলের দোয়া কামনা করেছেন লাবিবার মা আর্জিনা খাতুন লিপি।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park