1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
একযুগ পর প্রাণ ফিরে পেল ত্রিশাল পৌর বিএনপি - দৈনিক দেশেরকথা
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:০৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
খাগড়াছড়িতে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন  ভোজ্য তেলের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব নাকচ, বিক্রি হবে আগের দামেই শনিবার ঢাকায় আসছে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব রাঙ্গুনিয়ায় দাওয়াতে তাবলীগের নিছবতে ওলামায়েকেরামের আলোচনা সভা মাছ ধরতে গিয়ে পুকুরে ডুবে খালাতো ভাইবোনের মর্মান্তিক মৃত্যু   ঝালকাঠিতে ট্রাক-প্রাইভেটকার ও অটো রিক্সার সংঘর্ষে শিশুসহ ১‌২ জন নিহত সদরপুরে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা  জি এম এস পরিবহনের ধাক্কায় স্টিল ব্রীজের গার্ডার ভেঙ্গে  তীব্র যানজট টেস্ট পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত টাকা নিলেই ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

একযুগ পর প্রাণ ফিরে পেল ত্রিশাল পৌর বিএনপি

ইমরান হাসান
  • প্রকাশ বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
ত্রিশাল বিএনপি এর কমিটি দেওয়া হয়েছে

 118 বার পঠিত

ত্রিশাল(ময়মনসিংহ)প্রতিনিধি> কাউন্সিলের মাধ্যমে কমিটি গঠনের পর,ময়মনসিংহের ত্রিশালে একযুগ পর ত্রিশাল পৌর বিএনপির সম্মেলন অনুষ্টিত হয়েছে। সম্মেলনেকাউন্সিলের মাধ্যমে পৌর বিএনপির কমিটি গঠন করা হয়।

এই কমিটির মাধ্যমে দীর্ঘ তের বছর পর, পৌর বিএনপি তার আগের হারানো গৌরব ফিরে পেল। এই কমিটি পেয়ে তৃনমূলের নেতারা উজ্জিবিত। নেতারা মনে করেন এ কমিটির মাধ্যমে ত্রিশাল পৌর বিএনপি আবার প্রাণ ফিরে পেয়েছে।
কাউন্সিলের মাধ্যমে গত ২ সেপ্টেম্বর পৌর বিএনপির সভাপতি আলেক চাঁন দেওয়ান ও সাধারন সম্পাদক শেখ মোশারফ হোসাইন মিলন নির্বাচিত হন। পৌর বিএপির নেতারা মনে করেন, আলেক- মিলনের নেতৃত্বে দলকে সুসংগঠিত করে আগামী দিনে পৌর বিএনপি খালেদা জিয়া, তারেক রহমানের হাত ধরে জোড়ালো আন্দলনের মাধ্যমে গনতন্ত্র পূনরুদ্ধারে বলিষ্ঠ ভুমিকা পালন করবে।
দলীয় সূত্রে জানাযায়, ২০০৯ সালে ত্রিশাল পৌর বিএনপির কমিটি গঠিত হয়। ঐ কমিটি পার করে দেয়
একযুগ। কমিটিতে থাকাকালিন সময় ঐ কমিটির সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারন সম্পাদক আব্দুল ওহাব
মৃর্ধা মৃত্যুবরন করেন। তাদের মৃত্যুর পর পৌর বিএনপির কার্যক্রম ঝিমিয়ে পড়ে।

পরে ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে ময়মনসিংহ জেলা বিএনপির আহবায়ক ডা. মাহাবুবুর রহমান লিটন ও যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন বাবলুর বর্তমান কমিটি গোলাম রব্বানী বাদলকে আহবায়ক ও আলেক চাঁন দেওয়ানকে
সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক করে ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট ত্রিশাল পৌর বিএপির আহবায়ক কমিটি গঠন করেন। ঐ আহবায়ক কমিটি ১০ মাসে রাত দিন অক্লান্ত পরিশ্রমে ঢেলে সাজিয়ে পৌর বিএনপিকে অল্প সময় উজ্জিবিত করতে পৌর ৯ টি ওয়ার্ডে যাঁচাই-বাঁছাই করে প্রথমে ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করে। পরে প্রতিটি ওয়ার্ডে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেন।
বাদল-আলেকের আহবায়ক কমিটি গত ২ সেপ্টেম্বর পৌর বিএনপির সম্মেলন আহবান করেন। ঐ সম্মেলনে সুপার ফাইভ কাউন্সিলেরদের আনুষ্ঠানিক সর্বসম্মতিক্রমে আংশিক দুই সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করা হয়। এতে আলেক চাঁন দেওয়ানকে সভাপতি, শেখ মোশারফ হোসাইন মিলকে সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। সমে¥লনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রিয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, ময়মনসিংহ দক্ষিন জেলা বিএনপির আহবায়ক ডা: মাহবুবুর রহমান লিটন, এড. ওয়ারেস আলী মামুন, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল আলম, ময়মনসিংহ দক্ষিন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন বাবুল, যুগ্ম আহবায়ক আলমগীর মাহমুদ আলম, যুগ্ম আহবায়ক ফকরুদ্দিন আহম্দে বাচ্চু প্রমূখ।
ত্রিশাল পৌর বিএনপি ২ নং ওয়ার্ডের সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন সরকার বলেন, কাউন্সিলের মাধ্যমে সুন্দর একটি কমিটি হয়েছে। নব-নির্বাচিত কমিটির সভাপতি আলেক চান দেওয়ান ও সাধারন সম্পাদক মোশাররফ হোসেন মিলনের নেতৃত্বে আগামী দিন পৌর বিএনপি সকল আন্দোলনে ভুমিকা রেখে দলকে শক্তিশালী করে কাজ করবে।

ত্রিশাল পৌর বিএনপি ২ নং ওয়ার্ডের সাধারন সম্পাদক আমিরুল ইসলাম লিটন বলেন, বর্তমান সভাপতি-সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় আমরা উজ্জিবিত। তাদের নেতৃত্বে রাজপথে সংগ্রামের মাধ্যমে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার করবো। আন্দোলনের মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনবো।

উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এনামুল হক ভুইয়া বলেন, সাংগঠনিক কার্যক্রম শেষ করে কাউন্সিলরদের প্রাধান্য দিয়ে তাদের পছন্দের নেতাদের হাতেই নেতৃত্ব দেওয়া হয়েছে। এ কমিটি আগামী আন্দোলন সংগ্রাম বেগবান করবে।
ময়মনসিংহ দক্ষিন জেলা বিএনপির আহবায়ক ও ত্রিশাল উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ডা:
মাহবুবুর রহমান লিটন বলেন, ত্রিশাল পৌর বিএনপির দুই নেতার মৃত্যুতে সভাপতি-সাধারন সম্পাদক
পদ শূণ্য হয়। পরে আহবায়ক কমিটি গঠন করে দলকে উজ্জিবিত করা হয়। আহবায়ক কমিটির বাদল-
আলেকের আন্দোলনে সংগ্রামে বলিষ্ঠ ভুমিকা পালন করে। তারা ৯ টি ওয়ার্ডে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট
পুর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয়। পরে সম্মেলনে সুপার ফাইভ কাউন্সিলের সম্মতিক্রমে
সভাপতি/সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। আমি মনে করি আগামী দিনে আলেক-মিলনের নেতৃত্বে
পৌর বিএনপি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারে সকল
আন্দোলনে ভুমিকা রাখবে।
নব-নির্বাচিত পৌর বিএনপির সভাপতি আলেক চান দেওয়ান এ প্রতিনিধিকে বলেন, ডা: মাহবুবুর
রহমান লিটন উপজেলা বিএনপির আহবায়ক হবার পর দল আরও উজ্জিবিত হয়েছে। ঝিমিয়ে পড়া
বিএনপি আরও সুসংগঠিত হয়েছে। বিএনপিসহ সহযোগী সংগঠন গুলো এখন সুসংগঠিত। জিয়ার সৈনিক হিসেবে ডা: লিটন ভাইয়ের হাত ধরে পৌর বিএনপি আন্দোলনের মধ্যদিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশে গনতন্ত্র ফিরিয়ে এনে তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনবো।
নব-নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক শেখ মোশাররফ হোসাইন মিলন এ প্রতিনিধিকে বলেন, সাংগঠনিক
ভাবে বিএনপিকে শক্তিশালী করতে কাউন্সিলরগন আমাদের নির্বাচিত করেছেন। আমরা তাদের প্রতি
কৃতজ্ঞ। পৌর ৯ টি ওয়ার্ডের সকল নেতাকর্মীদের নিয়ে একসাথে সকল আন্দোলন, সংগ্রামে যাপিয়ে
পড়বো। আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশে গনতন্ত্র ফিরিয়ে আনবো । বাংলাদেশ
যাবে কোন পথে ফয়সালা হবে রাজপথে এ শপথ নিয়ে তারেক রহমানকে এ দেশে ফিরিয়ে আনবো।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park