1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
রাজাপুরে ফ্লিমি স্টাইলে বসতঘর ভাংচুর করে মালামাল লুট ! - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৫:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে থাই গেম ও  ভিসা   প্রতারকচক্রের ৫ সদস্য আটক  গলাচিপায় কবর ঘিরে মাজার বাণিজ্য,করা হচ্ছে জটিল ও কঠিন রোগের চিকিৎসা শাহীকে ঈদুল আজহায় ৪ লাখ টাকায় বেচতে চান মুকুল মিয়া  কিশারগঞ্জ থাই ও ভিসা প্রতারণার অভিযােগে  ৩ যুবক কারাগারে কুয়াকাটা সৈকতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান লিফলেট বিতরণ গরমে কদর বাড়ায় নলডাঙ্গায় তালের শাঁস বিক্রিতে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক সদরপুরে জমি ও গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ স্বাস্থ্য পরীক্ষায় সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়লেন ওবায়দুল কাদের আজ সারা দেশে ভূমিহীন আরও ১৮ হাজার ৫৬৬টি বাড়ি হস্তান্তর করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজাপুরে ফ্লিমি স্টাইলে বসতঘর ভাংচুর করে মালামাল লুট !

খায়রুল ইসলাম পলাশ
  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২১

 104 বার পঠিত

রাজাপুর প্রতিনিধি> ঝালকাঠির রাজাপুরে বসতঘর ভাংচুর করে মালামাল লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে উপজেলার সাতুরিয়া এলাকার মো.মিল্লাত হোসেন জোমাদ্দারের মেয়ে চন্দ্রিমা রিমুর বিরুদ্ধে। চন্দ্রিমা রিমু উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে বিউটিশিয়ান পদে কর্মরত রয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টার দিকে উপজেলার সাতুরিয়া ইউনিয়নের নৈকাঠি বাজার সংলগ্ন মো. শহিদুল ইসলাম হাওলাদারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। শহিদুল ইসলাম ঐ এলাকার মৃত এেেস্কন্দার আলী হাওলাদারের ছেলে।

প্রতক্ষদর্শীরা জানায,বৃহস্পতিবার সকালে হঠাৎ করে চন্দ্রিমা রিমু এবং রাজাপুর সদর ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের সদস্য নাজমা ইয়াসমিন মুন্নি ৩০/৩৫ জন নারীসহ প্রায় দেড়শত ভাড়াটিয়া লোক হাতে দেশীয় অস্ত্র রামদা, দা, লোহার রড়, হাতুড়ি ও লাঠি নিয়ে শহিদের বাড়িতে আসে। এ সময় শহিদ, তার স্ত্রী রমিছা আক্তার ও শ্বাশুরি মজিদা বেগমকে মারধর করে দড়িঁ দিয়ে বেধে রেখে তাদের বসত ঘর ভাংচুর করে ধংসস্তুপে পরিণত করে। ঘরে থাকা সমস্ত মূল্যবান মালামাল লুট করে পিকাপে তুলে নিয়ে যায়। তারা আরো জানায, যুদ্ধের সময় অনেক লুটপাটের কথা শুনেছি। কিন্তু এই স্বাধীন দেশে দিনের বেলায় এমন লুটপাটকে যুদ্ধের সময়কেও হার মানিয়েছে।

ভূক্তভোগী মো. শহিদুল ইসলাম হাওলাদার জানায়, চন্দ্রিমা রিমু নারী-পুরুষসহ প্রায় এক থেকে দেড়শত ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে আমাদের মারধর করে বেধে রেখে বসতঘর ভাংচুর করে সমস্ত মালামাল লুট করে পিকাপে করে নিয়ে যায়। ভাড়াটিয়া লোকের অস্ত্রের ভয়ে স্থানীয়রা কেউ সামনে আসতে পারেনি।

অভিযুক্ত চন্দ্রিমা রিমু লুটপাটের বিষয় অস্বীকার করে জানায, ঐ বসত ঘর ও জমি আমার স্বামীর, তাতে ওদের থাকতে দিয়ে ছিলাম। ঐ স্থানে ভবনের কাজ শুরু করবো তাই বসতঘরটি লেবার দিয়ে অপসারন করা হয়েছে। কাজ শেষে লেবারের বিল দিতে আমি ও ইউপি সদস্য নাজমা ইয়াসমিন মুন্নি ঘটনা স্থানে যাই।রাজাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.শহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনে ঘটনাস্থল থেকে জাহাঙ্গীর, নুরুজ্জামান,জুয়েল নামে তিন জনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রত্রিুয়াধীন।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park