1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
পৈতৃক সম্পত্তি ফিরে পেতে আইনের আশ্রয় নিয়েছেন আব্দুল গাফফার চৌধুরী। - দৈনিক দেশেরকথা
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে গ্রাম উন্নয়ন কমিটির দক্ষতা বৃদ্ধি বিষয়ক ২দিনের প্রশিক্ষণ  একুশে ফেব্রুয়ারিতে ৯ নং ক্রিকেট ক্লাব কর্তৃক আয়োজিত টুর্নামেন্টের ৮ম আসর অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়িতে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস  আজ একুশে ফেব্রুয়ারি, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর গভীর শ্রদ্ধা খাগড়াছড়িতে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে নাগরিক সংবর্ধনা হারিয়ে যেতে বসেছে আবহমান বাংলার চিরচেনা রক্তলাল শিমুল গাছ পাবনায় ডিবির অভিযানে ২৫০০ পিচ ইয়াবাসহ গ্রেফতার ২ গলাচিপায় অমর একুশে বইমেলা-২৪ শুভ উদ্বোধন ও আলোচনা সভা। জার্মানির মিউনিখ সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেছেন শেখ হাসিনা

পৈতৃক সম্পত্তি ফিরে পেতে আইনের আশ্রয় নিয়েছেন আব্দুল গাফফার চৌধুরী।

শিমুল তালুকদার
  • প্রকাশ বুধবার, ২৭ জুলাই, ২০২২
desherkotha

 80 বার পঠিত

ফরিদপুর প্রতিনিধিঃ বাবার নামে ক্রয়কৃত বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত হয়েছেন ফরিদপুর জেলার সদরপুর উপজেলারআড়াইরশি গ্রামের মৃত আবুল হাশেম চৌধুরীর পুত্র ও কন্যারা।

দীর্ঘ দিন বাবার রেখে যাওয়া জমাজমি ফিরে পেতে এলাকার বিভিন্ন জনের কাছে ঘুরাঘুরি করেও কোন লাভ না-হওয়ার কারনে আইনের আশ্রয় নিয়েছেন পুত্রআব্দুল গাফফার চৌধুরী। তিনি তাঁর বাবা মৃত আবুল হাশেম চৌধুরীর নামেরপৈতৃক সুত্রে পাওয়া এবং হাশেম চৌধুরীর নামে ক্রয়কৃত সম্পত্তি ফিরে পেতে ফরিদপুর জেলার ভাংগা উপজেলার মুন্সেফ আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা নং ১৬১/১২,১৪৭/১২, এবং ৪৪/১৫. এবং ফরিদপুরআদালতেও একটা মামলা করেছেন যাহার নম্বর ৩১০/১৯. মামলা এখনো চলমান আছে বলে জানান মামলার বাদী আব্দুল গাফফার চৌধুরী।  তিনি এই প্রতিবেদকের সাথে আলাপ কালে জানান, আমার বাবা ১৯৩৪ এবং ১৯৪৭ সালে স্থানীয় বাইশরশি বাবু দের নিকট থেকে  তাঁর নিজের নামে বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি ক্রয় করেছিলেন।

এবং আমার দাদার নামের সম্পত্তির ওয়ারিশ হিসেবে পাওয়া সহ সর্বমোট ৬ একর ৮০ শতাংশ জমির দাবী নিয়ে আদালতের সরাপন্ন হয়েছি। তিনি আরো জানান, আমি দীর্ঘদিন সরকারি চাকুরী করার কারণে বাড়ির বাইরে থাকার কারণে আমি আমার বাবার রেখে যাওয়া  সম্পত্তির খোঁজ খবর নিতে পারিনি।

গত ২০০৪ সালে আমি পেনসনে বাড়িতে আসার পরে আমার বাবার সব সম্পত্তির কাগজ পত্র উঠিয়ে দেখতে পাই যে আমার বাবার বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি রয়েছে। পরবর্তীতে আমি বিভিন্ন জনের নিকট ঘোরাঘুরি করে পরে আদালতের সরাপন্ন হয়েছি। বাবার রেখে যাওয়া সম্পত্তি ফিরে পেতে মাননীয় ভূমি মন্ত্রনালয়ের সু দৃষ্টিকামনা করছেন আব্দুল গাফফার চৌধুরী। 
 

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park