1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
জামালপুর স্ত্রীকে গাছে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন - দৈনিক দেশেরকথা
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১০:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশনা কিশোরগঞ্জে থাই গেম ও  ভিসা   প্রতারকচক্রের ৫ সদস্য আটক  গলাচিপায় কবর ঘিরে মাজার বাণিজ্য,করা হচ্ছে জটিল ও কঠিন রোগের চিকিৎসা শাহীকে ঈদুল আজহায় ৪ লাখ টাকায় বেচতে চান মুকুল মিয়া  কিশারগঞ্জ থাই ও ভিসা প্রতারণার অভিযােগে  ৩ যুবক কারাগারে কুয়াকাটা সৈকতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান লিফলেট বিতরণ গরমে কদর বাড়ায় নলডাঙ্গায় তালের শাঁস বিক্রিতে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক সদরপুরে জমি ও গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ স্বাস্থ্য পরীক্ষায় সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়লেন ওবায়দুল কাদের

জামালপুর স্ত্রীকে গাছে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন

শাহ আলী বাচ্চু
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২

 106 বার পঠিত

জামালপুর প্রতিনিধি ◆ জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলা সদর ইউপির মালিরচর জিগাতলা গ্রামের মাহমুদা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতনের সাথে জড়িত শিলা পারভীন (৪০) নামে   মাহমুদার বড় জা কে আটক করেছে পুলিশ।
সোমবার (৫ আগষ্ট ) দুপুর ১২টার দিকে  এই ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, বকশীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের জিগাতলা গ্রামের দিনদার হোসেনের ছেলে আসাদুল ইসলাম তার সাবেক স্ত্রী মাহমুদা বেগমকে  বাড়িতে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখেছেন।এরকম একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি থানা পুলিশের নজরে আসে।  
পরে পুলিশ দুপুর ২টার দিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা মাহমুদা বেগমকে উদ্ধার করে। একই সঙ্গে গাছে বেঁধে রাখার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আসাদুল ইসলামের বড়  জা শিলা পারভীনকে আটক করেল আসাদুলসহ অন‍্যান নির্যাতনকারী পালিয়ে যায়। শিলাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য  থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

স্থানীয় প্রতিবেশীরা জানান, ১২ বছর আগে আসাদুল ইসলামের সাথে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পাররামপুর ইউনিয়নের ঝাউডাঙ্গা গ্রামের মাহাজন মিয়ার মেয়ে মাহমুদা বেগমের সাথে  বিয়ে হয়।বিয়ের পর আসাদুল ইসলাম জীবিকার তাগিদে দেশের বাহিরে ব্রুনাই চলে যায়। মাহমুদার স্বামী আসাদুল ইসলাম  প্রবাসে থাকার কারণে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তার স্ত্রী মাহমুদা বেগমের সাথে মনোমালিন্য হয়। তাদের ঘরে ৩ বছরের একটি ছেলে ও  রয়েছে।

গত দুই মাস আগে ব্রুনাই থেকে আসাদুল ইসলাম দেশে ফিরলে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক ঝগড়া বিবাদের জন‍্য   মাহমুদা বেগম তার বাবার বাড়িতে চলে যায়। এর মধ্যে গত ২৩ আগস্ট আসাদুল ইসলাম তার স্ত্রী মাহমুদা কে তালাক দেয়। তালাকের খবর জেনে সোমবার ৪ আগষ্ট সকাল বেলায় মাহমুদা  আসাদুলের বাড়িতে চলে আসে। তালাকের  সত‍্যতা জানতে পেয়ে মাহমুদা  আসাদুলের ঘরে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। বাড়ির লোকজন মাহমুদা আত্মহত্যা  না করতে পারে সে জন‍্য আসাদুল ইসলাম বাড়ির আঙিনায় একটি গাছে বেঁধে রাখেন।

মাহমুদাকে গাছে  সাথে বেঁধে রাখার  ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে   ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়লে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।আসাদুলের বড় ভাই ও বকশীগঞ্জ সদর   ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর কবির আলমাছ জানান, আসাদুলের স্ত্রী মাহমুদাকে  তালাক দেওয়ার পরও আমার ভাইয়ের বাড়িতে এসে আত্মহত্যার চেষ্টা করায় তাকে নিরাপদ আশ্রয়ে রাখা হয়। নির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করেন।  বকশীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক আবু শরীফ জানান, গাছে বেঁধে রাখার বিষয়ে শিলা পারভীন নামে একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park