সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঝালকাঠিতে বিয়ের প্রলোভনে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষন,প্রমান লোপাটে কুপিয়ে জখম সিরাজগঞ্জের জনপ্রিয় দৈনিক ‘যুগের কথা’ পত্রিকার ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন গোপালপুর ও মৈনট ঘাটে দ্রুত ফেরি   চালুর  দাবি এলাকাবাসীর  পাবনার ঈশ্বরদী পদ্মার চরে কলা চাষে সাফল্য: হাসি ফুটিয়েছে চাষীদের মুখে   রাজাপুরে গাঁজা সহ দুই মাদক কারবারি আটক টুং টাং শব্দে মুখরিত কামার পল্লী  গোয়াইনঘাটে বন্যা দূর্গত এলাকায় বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ লক্ষ্মীপুরে নতুন কমিটি পেয়ে ছাত্রদলের আনন্দ মিছিল শিক্ষক নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদে জামালপুর উদীচীর প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে বজ্রপাতে কৃষক নিহত 

জবি ‘বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল’-এর দ্বারোদ্ঘাটিত

দেশেরকথা
  • প্রকাশ বুধবার, ১৬ মার্চ, ২০২২
  • ২২ বার-পাঠিত
রিদুয়ান ইসলাম,জবি প্রতিনিধি:
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) একমাত্র ছাত্রীহল বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল-এর দ্বারোদ্ঘাটন অনুষ্ঠান বিশ্ববিদ্যালয়ের হল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি, এমপি।
বুধবার (১৬ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের হল মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এসময় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরা তাদের জন্য একটি নতুন হল পেল- যা শিক্ষার্থীদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের বিষয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আনন্দ আরো বৃদ্ধি পাবে কেরানীগঞ্জের বিশাল নতুন ক্যাম্পাসে। নতুন ক্যাম্পাসে যাওয়ার জন্য শিক্ষার্থীরা বিভোর হয়ে রয়েছে।”
হল নির্মাণে উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সাবেক উপাচার্য, সংশ্লিষ্ট সকল ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক  বলেন, “ছাত্রীদের জন্য একটি হলের যাত্রা শুরু করার মাধ্যমে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় অনাবাসিক থেকে আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পথে অগ্রসর হলো। নানা প্রতিকূলতা থাকা স্বত্ত্বেও শিক্ষার মান ও শিক্ষার্থীদের সেবা প্রদানে কর্তৃপক্ষ তৎপর রয়েছে। অনাবাসিক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের মধ্যে একমাত্র জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়েই জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন কর্মসূচি ও করোনা টিকা কর্মসূচি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।”
তিনি আরো বলেন, “আমার কোন নিজস্ব এজেন্ডা নেই। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণায় আরো উন্নত হবে-এটাই হউক আমাদের মূল উদ্দেশ্য।”
এসময় তিনি আরো বলেন, “হলে ছাত্রীরা ডিজিটাল আইডি কার্ড পাঞ্চ করার মাধ্যমে প্রবেশ করতে পারবে। এর মাধ্যমে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ডিজিটালাইজেশন প্রক্রিয়ায় আরো একধাপ এগিয়ে গেল।”
এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ বলেন, “হল-এর দ্বার উন্মোচনের মাধ্যমে মেয়েদের আবাসন সমস্যা অনেকাংশে লাঘব হবে। হলের যেখানেই কোনো সমস্যা দেখা যাবে তা সমাধানে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”
অনুষ্ঠানে সভাপতি হিসেবে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল-এর প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম। এছাড়াও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. আবুল কালাম মোঃ লুৎফর রহমান, হলের আবাসিক শিক্ষক অধ্যাপক ড. প্রতিভা রানী কর্মকার, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মোঃ ইব্রাহীম ফরাজী ও সাধারণ সম্পাদক এস. এম. আকতার হোসাইন বক্তব্য প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগের চেয়ারম্যান, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, প্রক্টর, হলের আবাসিক শিক্ষক, সহকারী আবাসিক শিক্ষকসহ ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল-এ প্রায় বারশত ছাত্রীর আবাসনের ব্যবস্থা হয়েছে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD