বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৮:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জামালপুর রেজাল্ট নিয়ে বাড়ি ফেরা হলোনা সমৃদ্ধির কিশোরগঞ্জে টুংটাং শব্দে সরগরম হয়ে উঠেছে কামারপল্লী ফের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কোনো পরিকল্পনা নেই ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর কন্যাকে কটুক্তি করা সেই যুবক রনি রিমাণ্ডে সুন্দরগঞ্জে মাদক দ্রব্য রোধকল্পে কর্মশালা পিরোজপুরে ৬ জন সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারীদের শুদ্ধাচার পুরস্কারের চেক তুলে দেন জেলা প্রশাসন মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফের চাল বিতরণ মতলব উত্তরে মহিলা যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা র‍্যালি ও আলোচনা সভা রেওলয়েতে আউটসোর্সিংয়ে জনবল নিয়োগের প্রতিবাদে ঈশ্বরদীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন পাবনার ঈশ্বরদীতে ‘পাগলা রাজা’ বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় রেজাউল

গুচ্ছভুক্ত পরীক্ষার্থীদের সহায়তায় জবিস্থ ‘নরসিংদী জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ’

রিদুয়ান ইসলাম
  • প্রকাশ সোমবার, ১ নভেম্বর, ২০২১
  • ৮৩ বার-পাঠিত

জবি প্রতিনিধি>দেশের ২০টি সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় ঐতিহ্যবাহী নরসিংদী জেলা থেকে আগত শিক্ষার্থীদের জন্য ‘হেল্প ডেস্ক’ স্থাপন করে পর্যাপ্ত সহায়তা করেছে ‘নরসিংদী জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ’।

সোমবার (১ নভেম্বর) গুচ্ছের ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার্থীদের সহায়তা ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেছে ‘নরসিংদী জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ’ জবি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ‘নরসিংদী জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ’ এর সভাপতি রুবেল নিরব, সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ পালসহ অধ্যয়নরত অন্যান্য শিক্ষার্থীবৃন্দ।

‘নরসিংদী জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ’ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের জন্য তথ্য সহায়তা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। সহায়তা কেন্দ্র থেকে শিক্ষার্থীদের আসন পরিকল্পনা বিষয়ক তথ্য প্রদান করা হয়। হেল্প ডেস্কে শিক্ষার্থীদের ব্যাগ, মোবাইল গচ্ছিত রাখা হয়। এছাড়াও আগত পরীক্ষার্থীদের মাঝে মাস্ক, হ্যান্ড সেনিটাইজার, কলম, পানি বিতরণ করা হয়।

সার্বিক কার্যক্রমের বিষয়ে জবিস্থ নরসিংদী ছাত্র কল্যাণের সভাপতি রুবেল নিরব বলেন, আমরা আমাদের জেলা থেকে আগত শিক্ষার্থীদের সাধ্যমত সহযোগিতা করার চেষ্টা করেছি। তাদের সাথে নিয়ে আসা জিনিসপত্র (ব্যাগ, ঘড়ি, মোবাইল) সংগ্রহ করে আমাদের হেফাজতে রেখে তাদেরকে পরীক্ষা শেষে আবার ফিরিয়ে দিয়েছে।

সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ পাল বলেন, নিজ জেলা থেকে আসা পরীক্ষার্থীদের মাঝে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, কলম পানিসহ অন্যান্য সহায়ক দ্রব্যাদি বিতরণের মাধ্যমে তাদের পাশে থাকার চেষ্টায় ছিলাম আমরা। আমাদের এ আয়োজনে যারা পাশে ছিলো তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা। ভবিষ্যতেও আমরা এমন আয়োজন অব্যাহত রাখার চেষ্টা করবো।

উল্লেখ্য যে, গুচ্ছভুক্ত ২০ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা শেষ হয়েছে। ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা দিয়ে শেষ হয়েছে প্রথমবারের মত আয়োজন করা এই গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষা।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD