1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
গাজীপুরে পুলিশ লাইনসে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে অভিনেতা আবু হেনা রনিসহ ৫ জন দগ্ধ - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৩:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বেইলি রোডসহ সব আবাসিক স্থাপনায় রেস্টুরেন্ট বন্ধ চেয়ে রিট মহিপুর মৎস্য আড়ৎ পট্টিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে,ফায়ার ফাইটারের মাথায় আঘাত গাইবান্ধার কাবিলের বাজার মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত। বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল আর নেই মেলায় ৬০ কোটি টাকার বই বিক্রি ডিসি সম্মেলন শুরু কাল কাল থেকে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৬৩ টাকায় বিক্রি হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির মামলা, চলবে নিউইয়র্ক আদালতে সশস্ত্র  বাহিনী শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে: প্রধানমন্ত্রী গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ, হত্যা না আত্মহত্যা

গাজীপুরে পুলিশ লাইনসে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে অভিনেতা আবু হেনা রনিসহ ৫ জন দগ্ধ

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশ শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২

 153 বার পঠিত

ঢাকার গাজীপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে মীরাক্কেলখ্যাত কৌতুক অভিনেতা মোঃ আবু হেনা রনিসহ পাঁচজন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। প্রথমে তাদের উদ্ধার করে তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতের দিকে তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আনা হয়।

দগ্ধরা হলেন- কৌতুক অভিনেতা মোঃ আবু হেনা রনি, মোশাররফ হোসেন,পুলিশ কনস্টেবল মোঃ জিল্লুর রহমান, মোঃ ইমরান হোসেন ও মোঃ রুবেল হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জিএমপির চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। জিএমপি কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা ছিলেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। প্রধান অতিথি পৌঁছানোর পর তাঁকে উদ্বোধনী মঞ্চে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে তাঁর হাতে ওড়ানোর জন্য কয়েকটি গ্যাস বেলুন দেওয়া হয়। কিন্তু বারবার চেষ্টা করেও বেলুনগুলো উড়ছিল না। পরে কয়েকজন পুলিশ সদস্য বেলুনগুলো নিয়ে মঞ্চের পাশে চলে যান। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চলে যান মূল মঞ্চে।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চলে যাওয়ার পরে কয়েকজন পুলিশ সদস্য বেলুন বিক্রেতাকে ডেকে বকাঝকা করলে বিক্রেতা নিজেই বেলুনগুলো ওড়ানোর চেষ্টা করেন। ঢাকার গাজীপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে মীরাক্কেলখ্যাত কৌতুক অভিনেতা মোঃ আবু হেনা রনিসহ পাঁচজন দগ্ধ হয়েছেন।

গতকাল বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। প্রথমে তাদের উদ্ধার করে তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতের দিকে তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আনা হয়।

দগ্ধরা হলেন- কৌতুক অভিনেতা মোঃ আবু হেনা রনি, মোশাররফ হোসেন,পুলিশ কনস্টেবল মোঃ জিল্লুর রহমান, মোঃ ইমরান হোসেন ও মোঃ রুবেল হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জিএমপির চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। জিএমপি কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা ছিলেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। প্রধান অতিথি পৌঁছানোর পর তাঁকে উদ্বোধনী মঞ্চে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে তাঁর হাতে ওড়ানোর জন্য কয়েকটি গ্যাস বেলুন দেওয়া হয়। কিন্তু বারবার চেষ্টা করেও বেলুনগুলো উড়ছিল না। পরে কয়েকজন পুলিশ সদস্য বেলুনগুলো নিয়ে মঞ্চের পাশে চলে যান। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চলে যান মূল মঞ্চে।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চলে যাওয়ার পরে কয়েকজন পুলিশ সদস্য বেলুন বিক্রেতাকে ডেকে বকাঝকা করলে বিক্রেতা নিজেই বেলুনগুলো ওড়ানোর চেষ্টা করেন। তিনি বেলুনে আগুন দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটে।

এ সময় পাশে বসে থাকা মীরাক্কেলখ্যাত কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনিসহ পাঁচজন দগ্ধ হন। পুলিশ সদস্যরা তাঁদের গায়ে পানি ঢেলে আগুন নেভান এবং দ্রুত তাঁদের গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা এস এম আইউব হোসেন জানান, গাজীপুর থেকে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণ হয়ে দগ্ধ ৫ জন এসেছে। এদের মধ্যে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনির শরীরে ২৪ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে ও কনস্টেবল মোঃ জিল্লুর রহমানের শরীরের ২০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। বাকি তিনজনকে জরুরি বিভাগে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী পূর্ব থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) মিলন জানান, ঢাকা গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণ হয়ে পুলিশ সহ পাঁচজন দগ্ধ হয়েছিল।

আমরা প্রথমে তাদেরকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। পরে সেখান থেকে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসি। তাদের মধ্যে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি ও কনস্টেবল জিল্লুর রহমানের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বাকি তিনজনকে চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park