1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
কিশোরগঞ্জে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে কিশোরীদের মাঝে তথ্য কার্ড বিতরণ - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০২:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বেইলি রোডসহ সব আবাসিক স্থাপনায় রেস্টুরেন্ট বন্ধ চেয়ে রিট মহিপুর মৎস্য আড়ৎ পট্টিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে,ফায়ার ফাইটারের মাথায় আঘাত গাইবান্ধার কাবিলের বাজার মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত। বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল আর নেই মেলায় ৬০ কোটি টাকার বই বিক্রি ডিসি সম্মেলন শুরু কাল কাল থেকে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৬৩ টাকায় বিক্রি হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির মামলা, চলবে নিউইয়র্ক আদালতে সশস্ত্র  বাহিনী শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে: প্রধানমন্ত্রী গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ, হত্যা না আত্মহত্যা

কিশোরগঞ্জে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে কিশোরীদের মাঝে তথ্য কার্ড বিতরণ

আনোয়ার হোসেন
  • প্রকাশ বুধবার, ৩১ আগস্ট, ২০২২

 152 বার পঠিত

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধ>”মেয়ে আমার অংহকার১৮’র আগে বিয়ে নয়,এই আমার অঙ্গিকার”-এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে বাল্যবিয়ের ঝুঁকিতে থাকা কিশোরীদের মাঝে তথ্য কার্ড বিতরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত মঙ্গলবার(৩০ আগষ্ট)বিকালে নিতাই ইউপির ৯নং পল্লী সমাজের আয়োজনে এবং উপজেলা শাখার ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনী সুরক্ষা কর্মসূচির সহযোগিতায় নিতাই মুশরুত পানিয়াল পুকুর বেলতলীর বাজার স্কুল পাড়া গ্রামে ৩০ জন কিশোরীর মাঝে এ তথ্য কার্ড বিতরণ করা হয়।

এ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,নিতাই ইউপি চেয়ারম্যান মুত্তাকিনুর রহমান আবু,সামাজিক ক্ষমতায়ণ ও আইনী সহায়তাকারী কর্মকর্তা মোকলেছুর রহমান,সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা সদস্যা রোজিনা বেগম,কিশোরীদের অবিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমুখ।এসময় ওই পল্লীসমাজ এলাকায় বাল্যবিয়ের ঝুঁকিতে থাকা কিশোরী ও অভিভাবকদের সচেতন মূলক আলোচনা।বাল্যবিয়ের  কুফল।

প্রতিরোধে ভূমিকা রাখা। বাল্যবিবাহের ক্ষতিকর ও আইনগত দিক তুলে ধরা হয়।জানা যায়,ওই কর্মসূচির আওতায় গ্রামের কিশোরী যাদের বয়স ১২ হতে ১৭ এর মধ্যে এবং বাল্যবিয়ের ঝুঁকিতে রয়েছে, তাদের তালিকা করে কিশোরীদের নাম,পিতা-মাতার নামসহ জন্ম তারিখ এবং ১৮ বছর উত্তীর্ণ হওয়ার তারিখ উল্লেখ্য পূর্বক একটি করে তথ্য কার্ড প্রদান করা হয়।

যা এ কার্ড কিশোরীদের ১৮ বছর পূর্তিতে সনদ হিসেবে কাজ করবে। তখন অভিভাবকরা কার্ড অনুযায়ী মেয়ের বিয়ে দিতে পারবেন।এছাড়াও বাল্যবিবাহ বন্ধে সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান যেমন উপজেলা নির্বাহী অফিসার,থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা,ব্র্যাক অফিসের নম্বরসহ সরকারী হটলাইন নম্বর -১০৯ কার্ডে লিপিবদ্ধ করা হয়।যা এর মাধ্যমে বাল্যবিয়ে বন্ধে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park