1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
কম দমে পেঁয়াজ বিক্রির কারণ জানালেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী - দৈনিক দেশেরকথা
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহে আশ্রয়ণ বাসিন্দার শিশুদের মাঝে ডিম খাওয়ানো উৎসব  কিশোরগঞ্জে গ্রেনেড, মাইন্ড ও থ্রি-নটথ্রি রাইফেল উদ্ধার কিশোরগঞ্জে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহে আশ্রয়ণ বাসিন্দার শিশুদের মাঝে ডিম খাওয়ানো উৎসব  রাঙ্গুনিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনার চুয়েটের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু  জলবায়ু পরিবর্তনে ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের বিদায় সম্বর্ধনা  স্ত্রীর কাপড় না আনায় বকুনি স্বামীর পিটুনিতে প্রাণ গেল গায়ত্রীর তীব্র তাপদাহে বশেমুরবিপ্রবিতে ভার্চুয়ালি ক্লাস, বন্ধ থাকবে সকল পরিক্ষা!! জনপ্রিয় অভিনেতা অলিউল হক রুমি আর নেই আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস

কম দমে পেঁয়াজ বিক্রির কারণ জানালেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল, ২০২৪

 87 বার পঠিত

রমজানের শেষ ১০ দিনে রোজাদাররা যাতে স্বস্তিতে ইফতার করতে পারে সে জন্য ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে সুলভ মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাজধানীর টিসিবি ভবনের সামনে এ পেঁয়াজ বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে এ কথা জানান বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, পেঁয়াজ পচনশীল। আমদানি করতে অনেক ঝুঁকি ছিল। তাই শঙ্কায় ছিলাম এই পেঁয়াজ ভোক্তা পর্যায়ে পৌঁছে দিতে পারবো কি না। তবে আমাদের সাহসের জায়গা ছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ। তার নির্দেশনা ছাড়া এটা সম্ভব ছিল না।

নির্বাচনের আগে থেকেই যেকোনো মূল্যে দ্রব্যমূল্য সামাল দেয়া প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্য ছিল জানিয়ে টিটু বলেন, এই পেঁয়াজের মান ভালো। সংরক্ষণ করা যাবে। দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৪০ টাকা কেজি। পর্যায়ক্রমে শিগগিরই বাকি পেঁয়াজ আনা হবে। প্রতিবেশী দেশ ছাড়া এটা সহজ হতো না। কারণ মিশর, তুরস্ক থেকে আনলে অনেক খরচ হতো।

মূলত রমজানের শেষ ১০ দিনে রোজাদাররা যাতে স্বস্তিতে ইফতার করতে পারে সে জন্য টিসিবির মাধ্যমে সুলভ মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, এই পেঁয়াজ ভারত সরকার টনপ্রতি আবুধাবিতে বিক্রি করছে ১ হাজার ২০০ ডলার। বাংলাদেশের জন্য দাম ৮০০ ডলার বেঁধে দেয়া হয়েছিল। তবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ তার দল নিয়ে তিন দিন ভারত সরকারের সঙ্গে নেগোসিয়েশন করে কম দামে এই পেঁয়াজ এনেছেন।

দেশের কৃষকরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, আমি বলেছিলাম পুলিশ দিয়ে না, সাপ্লাই দিয়ে বাজার সামলাবো। টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি সেটাই প্রমাণ করবে। এই ট্রাকসেল ওপেন সেল। যেকেউ আড়াই কেজি করে পেঁয়াজ কিনতে পারবে। জেলা পর্যায়ে ইতোমধ্যে দাম কমে গেছে। ঢাকা ও চট্টগ্রামে বিক্রির কারণ, বড় শহরে দাম কমলে বাকি জায়গায়ও কমে যাবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, রাজনীতির জায়গায় রাজনীতি রাখেন। আমদানি রপ্তানির বাণিজ্য রাজনীতির বাইরে রাখেন। ভোক্তার অধিকার রক্ষার্থে পণ্য নিয়ে আমরা যেন রাজনীতিকরণ না করি। টিসিবি আগামীতে শুধু পেঁয়াজ না, সব পণ্য বিক্রি করবে। বাফার স্টক তৈরি করে টিসিবি নিজস্ব স্টলে সারা বছর পণ্য বিক্রি করে বাজার সামাল দিবে এরপর থেকে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park