1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
আগামী দুই বছরে এফডিসির সব সমস্যা দৃর হবে: তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী - দৈনিক দেশেরকথা
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মূল্যস্ফীতি যাতে নিয়ন্ত্রণে থাকে সে চেষ্টা করে যাচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিশোরগঞ্জে বিদ্যুৎস্পর্শে বৃদ্ধের মৃত্যু আজ থেকে ইলিশসহ সব ধরনের মাছ শিকারে ৬৫ দিনের  নিষেধাজ্ঞা। নলডাঙ্গায় পারিবারিক কলহের জেরে গৃহবধুর আত্মহত্যা! কিশোরগঞ্জে ছোট্ট ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বড়ভাই নিহত খাগড়াছড়িতে জেলা পর্যায়ে স্টেকহোল্ডার ক্যাম্পেইন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত  দূর্যোগ মোকাবেলায় ১কোটি সেচ্ছাসেবী প্রশিক্ষন দিয়ে গড়ে তুলবেন প্রতিমন্ত্রী মহিব খাগড়াছড়ি’র ঐতিহ্যবাহী বলী খেলা দেখতে কানায় কানায় পূর্ণ খাগড়াছড়ি স্টেডিয়াম সৌদি আরবে বাংলাদেশী প্রথম হজ যাত্রীর মৃত্যু আমতলী পৌরসভার দু’টি বাস স্টান্ড উদ্বোধন 

আগামী দুই বছরে এফডিসির সব সমস্যা দৃর হবে: তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশ বুধবার, ৩ এপ্রিল, ২০২৪

 50 বার পঠিত

বিএফডিসির ব্যাপক পরিবর্তনের আশ্বাস দিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত। তিনি বলেন, ‘আজ এপ্রিলের তিন তারিখ। দুই বছর পর আবার দেখা হবে। সেদিন একটা বিশাল উন্নয়ন দেখতে পাবেন আপনারা।

যেসব সমস্যা রয়েছে তা থাকবে না। এফডিসি নিজের পায়ে দাঁড়াবে। বেতন সংক্রান্ত যত সমস্যা আছে আমরা শুধরে ফেলব। আরও অনেক পরিবর্তন আপনারা দেখবেন। ’
বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনে (বিএফডিসি) তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে এবং বিএফডিসির তত্ত্বাবধানে জাতীয় চলচ্চিত্র দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এফডিসিকে একটা নিয়মের মধ্যে নিয়ে আসতে হবে। এফডিসি পুরনো টেকনোলজি ঘরনায় ছিল, সেখান থেকে আপডেট করতে হবে। সেই প্রক্রিয়ার মধ্যে এখন আছে। আরও বেশ কিছু পরিকল্পনা আমাদের আছে সেজন্য দুই বছরের সময় চেয়েছি। ’

দিনে দিনে হলের সংখ্যা কমে যাচ্ছে- এ বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন,‘ হল মালিকরা হল যদি ভেঙে ফেলতে চায় তাহলে বাধা দিয়ে আটকানো যাবে না। আমরা হল মালিক সমিতির সঙ্গে বসেছি, আমরা বলছি- এমনভাবে হল বানাতে হবে যেন সেটা লাভজনক হয়। লাভ হলে কেউ হল ভাঙবে না। সিনেমা দেখানোর পাশাপাশি আনুষঙ্গিক আরও কিছু বিষয় থাকতে হবে, সিনেপ্লেক্সের মতো না হলেও এমন কিছু থাকতে হবে যেটা নতুন প্রজন্মকে আকর্ষণ করবে। গোটা দেশজুড়ে সিনেপ্লেক্স করার পরিকল্পনা আছে আমাদের। হল সচল হলে সিনেমা সচল হবে, সিনেমা সচল হলে শিল্পীরা সচল হবে, শিল্পী হলে প্রযোজক, প্রযোজক হলে পরিচালক। এটা একটা সার্কেলের মতো। আগামীদিনে আরও উন্নয়ন হবে। ’

এর আগে দুপুরে চলচ্চিত্র দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভায় অংশ নেন প্রতিমন্ত্রী। এ আয়োজনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা ১০ আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌস আহমেদ এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।

‘আমাদের চলচ্চিত্র আমাদের অহংকার, প্রেক্ষাগৃহে দেখব ছবি এই হোক অঙ্গিকার’ প্রতিপাদ্যে অনুষ্ঠিত এবারের চলচ্চিত্র দিবসের প্রবন্ধ পাঠ করেন চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ।

প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৫৭ সালের ৩ এপ্রিল তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদে চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন (এফডিসি) গঠনের প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এই দিনকে স্মরণ করে ২০১২ সাল থেকে জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উদযাপন করা হয়।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park