1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
কুয়াকাটা দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে শিশু ও নারীসহ  আহত ১০  - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ০৩:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাদুরতলা স্পোর্টিং ক্লাবের শুভ উদ্বোধন ঝালকাঠির বাসন্ডা ব্রীজটি বার্ধক্যের ভারে যেন মরন ফাঁদ সদরপুরে মৎস্য আইনে মোবাইল কোর্ট,বাধ সহ ২৭ টি চায়না দোয়ারি ধ্বংস  রায়পুরে ডাকাতিয়া নদী পরিস্কার কর্মসূচীর উদ্বোধন সদরপুরে ৪ কেজি গাঁজা সহ ব্যবসায়ী কে আটক করেছে ডি বি পুলিশ  চীনের সাথে ৭টি প্রকল্প ও ২১ একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করলেন প্রধানমন্ত্রী ঝালকাঠিতে মাছ ধরার ফাঁদ তৈরীতে ব্যস্ত কারিগররা। চীন সফর শেষে বুধবার দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশ্নফাঁস:পিএসসির ৩ কর্মকর্তাসহ ১০ জন কারাগারে কোটা নিয়ে সব পক্ষের বক্তব্য শুনে ন্যায়বিচার করবে আদালত: আইনমন্ত্রী

কুয়াকাটা দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে শিশু ও নারীসহ  আহত ১০ 

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ
  • প্রকাশ সোমবার, ৬ মে, ২০২৪

 29 বার পঠিত

কলাপাড়া উপজেলা প্রতিনিধি>পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার কুয়াকাটায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে শিশু ও নারীসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৬ জনকে কুয়াকাটা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর বাকি চারজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 

রবিবার (০৫ মে) রাত ১০ টায় কুয়াকাটার তুলাতুলি বাস টার্মিনাল সংলগ্ন এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় পুরো বাস টার্মিনাল এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করে। আতঙ্কিত হয়ে পড়ে পর্যটক সহ স্থানীয়রা।  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কুয়াকাটার নয়াপাড়া গ্রামের হানিফ মেম্বার গংদের সাথে পার্শ্ববর্তী তুলাতলী এলাকার মোশারেফ আকন গংদের সাথে দীর্ঘদিন জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে শনিবার রাত ১০ টায় তুলাতুলি এলাকায় বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে কথা কাটা কাটির একপর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে হানিফ মেম্বার ও মোশারফ আকন পক্ষের মোট ১০ জন আহত হয়। 

সংঘর্ষে আহতরা অভিযোগ পালটা অভিযোগ করছেন একে অপরের বিরুদ্ধে। তবে দুপক্ষের এ সংঘর্ষে নারী ও শিশুসহ মোট ১০ জনকে রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। 

সংঘর্ষে দুই পক্ষের আহতরা হলেন, জাহিদুল(২৫), মনির(৩২), বাশার(৪০), হ্যাপি বেগম (৪০),সালমান (২৭)। মোশারফ আকন(৫০),আমির আকন(৪৫),হাসান আকন(১৮) সুমি(২৮), চানবানু(৬০) এদের মধ্যে মনির,জাহিদুল সহ মোট চারজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে মহিপুর থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণে আসে। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদে দুজনকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত স্বাপক্ষে আইনানুক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park