1. alaminjhalakati@gmail.com : mdalminjkt Jhalakathi : mdalminjkt Jhalakathi
  2. arifkhanjkt74@gmail.com : daynikdesherkotha :
পিরোজপুরের কাউখালীর হাট-বাজারের জায়গায় বসত বাড়ি তৈরি - দৈনিক দেশের কথা
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ঠাকুরগাঁওয়ে স্বাস্থ্য বিভাগকে করোনা সামগ্রী দিলো আ.লীগ পিরোজপুর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হাসান আল মামুন এর পিতার মৃত্যুতে সংগঠনের নেতাদের শোক পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে মামলার আসামী ইউপি চেয়ারম্যান মেয়াজ্জেম হেসোনকে আড়াই মাসেও গ্রেফতার না করার অভিযোগ মনিরামপুরের সবার প্রিয় কাশেম স্যার আর নেই কুষ্টিয়া প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যার ঘটনায় পুলিশের এএসআই আটক চাটখিলে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রবাসির সম্পত্তি দখলের অভিযোগ। পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীতে আনসার ও ভিডিপির নতুন ভবনের উদ্বোধন জবির সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা ১০ আগস্ট, ইদের আগেই হবে অ্যাসাইনমেন্ট কিশোরগঞ্জে আগ্রহ বাড়ছে প্লাস্টিকের বস্তায় আদা চাষ কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে মা-ছেলেকে গুলি করে হত্যা

পিরোজপুরের কাউখালীর হাট-বাজারের জায়গায় বসত বাড়ি তৈরি

পিরোজপুর প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত রবিবার, ৩০ মে, ২০২১
  • ৫৩ বার দেখেছেন
হাট-বাজারের জায়গায় বসত বাড়ি তৈরি

পিরোজপুরের কাউখালী হাট-বাজার উপজেলার হাট-বাজারের মধ্যে ঐতিহ্যবাহী একটি হাট। হাটের দিন বহু দূর থেকে হাজার হাজার মানুষ ব্যবসা-বাণিজ্য করতে এই হাটে আসেন। কিন্তু প্রভাবশালী ব্যক্তিদের কালো থাবায় হাট-বাজারের অনেক জায়গা এখন বসত বাড়ি তৈরি করে সাধারণ মানুষ বসবাস করছে।

হাটের জায়গাগুলো যাও রয়েছে তাও অবৈধ দখলদাররা দখল করে নিয়েছে। হাটের জায়গাগুলো একশনা লিজ নিয়ে কেউ বসত বাড়ি করছে, কেউ গোডাউন তৈরি করছে, কেউ কারখানা তৈরি করে নিজেদের আয়ত্বের মধ্যে রেখেছে। ফলে দূর-দূরান্ত থেকে আসা পণ্য দ্রব্য নিয়ে বিপাকে পড়তে হয়েছে অনেকেরই। অনেকে আবার একশনা লিজ নিয়ে বাড়ি ঘর নির্মাণ করে প্রতিমাসে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। যার কারনে হাটের দিন ফুটপাতের দুইপাশ তোহা বাজার হিসেবে ভাসমান ব্যবসায়ীরা দোকানের পসরা সাজিয়ে বেঁচা-কেনা করছে।

এতে করে হাট-বাজারে শত শত লোক যাতায়াত-চলাফেরাসহ বিভিন্ন ধরণের অসুবিধার সম্মুখিন হচ্ছে। ১৯৯৮-৯৯ সালে কাউখালী হাট-বাজার পেরিফাই করে নির্দিষ্টভাবে পন্যদ্রব্য বিক্রির স্থান নির্ধারণ করা রয়েছে। অভিযোগ উঠছে এসকল নির্ধারিত স্থানে পণ্যদ্রব্য বিক্রি না করে রাস্তার দু’ধারে হাটা-চলার পথে বিক্রি করার দুর্ভোগে পড়ছে ক্রেতা-বিক্রেতারা। এই হাট-বাজারে ৬শত ৭৫টি এ পর্যন্ত লিজ দেয়া হয়। যার মধ্যে অনেক লিজ গ্রহীতাই বাসা-বাড়ি করে বসবাস করে এবং ভাড়া প্রদান করে। এতে করে প্রতিবছর হাট-বাজারের পরিধি কমে যায়, ফলে সরকার লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে।

প্রতিবছর সরকার এই হাট থেকে প্রায় কোটি টাকা রাজস্ব আয় হলেও দীর্ঘ এক যুগেও এর পরিধি বাড়েনি। হাট-বাজাররের ইজারাদার হারুন অর রশিদ খান অভিযোগ করে তোহা বাজার বসানোর কোন ব্যবস্থা না থাকায় দূরের পণ্য বিক্রেতারা হাট-বাজার আসেন না। ফলে আগের তুলনায় হাট-বাজার অনেক কম বসে। যার কারনে সরকারের রাজস্ব বাড়ছে না।

তোহা বাজার দখলমুক্ত করতে পারলে হাট-বাজারের পরিধি বাড়বে এবং সরকারের অনেক রাজস্ব বাড়বে ও হাট বাজারের সৌন্দর্য্য পাবে। ক্রেতা-বিক্রেতাদের সমাগত বাড়বে। এব্যাপারে কাউখালী সহকারী কমিশনার (ভূমি) জান্নাত আরা তিথি জানান, অবৈধ দখল এবং বসতবাড়ি চিহ্নিত করে লিজ ব্যবসা বানিজ্যের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021
WEB DEVELOPMENT BY KB-SOFTWARES