1. news.desherkotha.bd@gmail.com : ARIF KHAN : ARIF KHAN
  2. arifkhanjkt74@gmail.com : daynikdesherkotha :
রাজারহাটে অবৈধ বালু উত্তোলনের সংবাদ সংগ্রহে সাংবাদিক লাঞ্চিত থানায় অভিযোগ - দৈনিক দেশের কথা
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৩:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
চাটখিল ক‌মিউ‌নি‌টি ক্লি‌নি‌কে এমপি’র পর্যবেক্ষণ,চিকিৎসকের স্ট্যান্ড রিলিজ খুলনায় কঠোর লকডাউন দিয়ে গনবিজ্ঞপ্তি জারি আত্রাইয়ে দেয়াল চাপা পড়ে এক শিশুর মৃত্যু, আহত হয়েছেন আরও ৩ জন কিশোরগঞ্জ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের রড চুরি- ধ্রুত চোরকে ছেড়ে দিল কর্তৃপক্ষ ঝালকাঠিতে হয়রানীর অভিযোগে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সন্মেলন আধুনিকতার ছোঁয়ায় এখন হারিয়ে গেছে, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য বিয়ের পালকি রাজাপুরে রাতের আধারে মারপিট ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা, হাতুরি সহ দুই আসামী গ্রেফতার খুলনায় মঙ্গলবার থেকে ৭ দিনের কঠোর লকডাউন ঘোষণা তেরখাদায় ঘন বৃষ্টি,চরম ভোগে সাধারণ জনজীবন ২২ ঘন্টা পর যাদুকাটায় নৌকা ডুবে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার

রাজারহাটে অবৈধ বালু উত্তোলনের সংবাদ সংগ্রহে সাংবাদিক লাঞ্চিত থানায় অভিযোগ

আব্দুল হাকিম সবুজ রাজারহাট প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত রবিবার, ৩০ মে, ২০২১
  • ৩৯ বার দেখেছেন
daynikdesherkotha

রাজারহাটে সাংবাদিক সোহেল রানা অবৈধ বালু উত্তোলনের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে লাঞ্চিত হয়েছে। এ ঘটনায় সোহেল রানা বাদী হয়ে নিখিল চন্দ্রকে প্রধান আসামী করে অজ্ঞাত নামীয় আরো কয়েকজনের নামে রাজারহাট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রাজারহাট উপজেলার চাকিপশার ইউপির বারোসুধাই গ্রামে নিখীল চন্দ্রের ফসলের জমি থেকে ড্রেজার মালিক লাল মিয়া দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে মজুদ করে বিক্রি করে আসছে। এরই সূত্র ধরে ৩০ মে রবিবার দুপুরে সাংবাদিক সোহেল রানা সরেজমিনে গিয়ে অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের ছবি তুলতে গেলে তার কাছে থাকা ক্যামেরা, সাংবাদিকতার পরিচয় পত্র কার্ড, কলম ও প্যাড ছিনিয়ে নেন নিখীল চন্দ্র ও তার সহযোগী লাল মিয়া এবং সংবাদ প্রকাশ করা হলে প্রাণ নাশের হুমকি প্রদর্শন করেন।এ ঘটনায় সাংবাদিকরা ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করছেন।
এ বিষয়ে রাজারহাট থানার ওসি রাজু সরকার বাংলা৭১বার্তা কে বলেন,অভিযোগ পেয়েছি ঘটনাটি তদ্ন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021
WEB DEVELOPMENT BY KB-SOFTWARES