1. alaminjhalakati@gmail.com : mdalminjkt Jhalakathi : mdalminjkt Jhalakathi
  2. arifkhanjkt74@gmail.com : daynikdesherkotha :
কিশোরগঞ্জে আগ্রাসী যান্ত্রিকতায় বাবুইপাখির শিল্প অহংকার তছনছ - দৈনিক দেশের কথা
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০২:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
নির্বাচনী প্রচারনার শেষের দিকে রাজাপুরের ইউনিয়ন গুলোতে জমে উঠেছে নির্বাচনী আমেজ,চলছে প্রচার ও উঠান বৈঠক ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপনে ছিলেন আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান। পিরোজপুরে সদর উপজেলায় নৌকা প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগ সুনামগঞ্জের যাদুকাটায় নৌকা ডুবে যুবক নিখোঁজ : উদ্ধার ২ খুলনায় ভূমিহীনদের গৃহনির্মাণ কাজ শতভাগ সম্পন্ন, রবিবারে ১,৩৫১ পরিবারের মাঝে হস্তান্তর ঝালকাঠি পৌর নির্বাচনে নারী ভোটাররাই প্রার্থীদের একমাএ ভরসা মানবতার ফেরিওয়ালা সাংবাদিক এনায়েত ফেরদৌস জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকীর আলোচনা সভায় বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল কিশোরগঞ্জে মুজিব পল্লীতে মাথা গোঁজার ঠাঁই পাচ্ছে ১৭০ গৃহহীনপরিবার বিরামপুরে খড় বোঝাই ভ্যানে মিললো ৩৪ বোতল ফেনসিডিল,আটক-২

কিশোরগঞ্জে আগ্রাসী যান্ত্রিকতায় বাবুইপাখির শিল্প অহংকার তছনছ

আনোয়ার হোসেন-কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশিত মঙ্গলবার, ১৮ মে, ২০২১
  • ৬২ বার দেখেছেন

ডিজাইন, প্লান আর প্রাক্কলন ছাড়াই অট্টালিকা বুননে দক্ষ প্রকৌশলী পাখির নাম বাবুই পাখি।তৃণভোজী এ পাখি প্রকৌশলী বিদ্যায় অধ্যায়ন না করেও অট্টালিকা বুননের দক্ষ প্রকৌশলী ও বয়ান শিল্পী পাখি হিসেবে পরিচিত সবার কাছে। প্রকৃতি তাকে শিখিয়েছেন এ বিদ্যার কারিগরি জ্ঞান।প্রকৃতির বিদ্যায় দক্ষ এ পাখি তাল,নারিকেল, সুপারী গাছের কচি পাতা দিয়ে মনের ভেলকি বাজির মাধুরি মিশিয়ে হাজারো ঠোঁটের সুঁইয়ের ফোঁড়ে আস্ত আবরণে সুনিপুণ কারুকার্যে খচিত ওই গাছের একদম উচু পাতায় নয়ানাভিরাম, তিলোত্তমা রূপে বাসা বাঁধে।তার নিখুঁত গাঁথুনির অট্টালিকা দেখে থমকে দ্াঁড়ায় পথিকের মন।

আর সুরেলা কন্ঠের কিচিরমিচির গানে বিমোহিত হন আবালবৃদ্ধবনিতা সবাই। কবি রজনীকান্ত সেন স্বাধীনতার সুখ কবিতায় লিখেছেন, ডাকি বলিছে চড়াই, কুঁড়েঘরে থাকি কর শিল্পের বড়াই, আমি থাকি মহাসুখে অট্টালিকার পরে, তুমি কত কষ্ট পাও রোদ-বৃষ্টি ঝড়ে, বাবুই হাসিয়া কহে সন্দেহ কি তায়?, কষ্ট পাই তবু থাকি নিজের বাসায়। অট্টালিকায় বড়াই করা এ পাখি একটা সময় শহর থেকে গ্রাম, মফস্বল এলাকায় অবাধ বিচরণের মাঝে কিচির মিচির শব্দ আর খুনসুটিতে ভোর রাতে ঘুম ভাঙতো সাধারণ মানুষের। কিন্তু কবিতায় চিরচেনা বাবুই পাখির স্বাধীনতা আর সুখ দু-ই আজ হুমকির মুখে।কবি রজনীকান্ত সেন কবিতাটি রচনা করেন মুলতঃ আত্মনির্ভরশীল পাখির সাদৃশ্যের দৃষ্টান্তের মাঝে মানুষকে মানবিকভাবে জাগ্রত করে নিজেকে আত্মপ্রত্যয়ী করে গড়ে তোলার জন্য।

বাবুই পাখিকে নিয়ে কবিতাটি আজোও মানুষের উদাহরণ হিসেবে ব্যবহার করলেও হারিয়ে যেতে বসেছে বাবুই পাখি ও তার নিজ ঠোঁটের সুঁইয়ের ফোঁড়ে গড়া কাঁচা খাসা ঘর। বাবুই পাখির বাসা আজ অনেকটাই স্মৃতির অন্তরালে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। অথচ আজ থেকে ১০/১৫ বছর আগেও গ্রাম-গঞ্জের নৈসর্গিক প্রকৃতির তাল, নারিকেল ও সুপারীর গাছে দেখা যেত বাবুই পাখির দৃষ্টিনন্দন বাসা।নীলফামারী কিশোরগঞ্জে বিভিন্ন গ্রামীণ জনপদে এখন আর আগের মত বাবুই পাখির দৃষ্টিনান্দনিক বাসা চোখে পড়েনা।

এসব বাসা শুধু শৈল্পিক নিদর্শনই ছিল না মানুষের মনে চিন্তার খোরাক জোগাতে এবং স্বাবলম্বী হতে উৎসাহিত করত।কিন্তু সময়ের বিবর্তনে ও পরিবেশের বিপর্যয়ের কারণে শিল্পের বড়াই করা এ পাখিটি আমরা হারাতে বসেছি।তাকেও চড়াইয়ের মত আবদ্ধ করেছে অট্টালিকার পরে। তাই বাবুই পাখি ও তার বাসা টিকিয়ে রাখতে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন এলাকাবাসি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021
WEB DEVELOPMENT BY KB-SOFTWARES