1. news.desherkotha.bd@gmail.com : ARIF KHAN : ARIF KHAN
  2. arifkhanjkt74@gmail.com : daynikdesherkotha :
অতিরিক্ত সচিবকে কোষাধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দেয়ায় মাভাবিপ্রবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রতিবাদ - দৈনিক দেশের কথা
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৩:১০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
চাটখিল ক‌মিউ‌নি‌টি ক্লি‌নি‌কে এমপি’র পর্যবেক্ষণ,চিকিৎসকের স্ট্যান্ড রিলিজ খুলনায় কঠোর লকডাউন দিয়ে গনবিজ্ঞপ্তি জারি আত্রাইয়ে দেয়াল চাপা পড়ে এক শিশুর মৃত্যু, আহত হয়েছেন আরও ৩ জন কিশোরগঞ্জ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের রড চুরি- ধ্রুত চোরকে ছেড়ে দিল কর্তৃপক্ষ ঝালকাঠিতে হয়রানীর অভিযোগে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সন্মেলন আধুনিকতার ছোঁয়ায় এখন হারিয়ে গেছে, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য বিয়ের পালকি রাজাপুরে রাতের আধারে মারপিট ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা, হাতুরি সহ দুই আসামী গ্রেফতার খুলনায় মঙ্গলবার থেকে ৭ দিনের কঠোর লকডাউন ঘোষণা তেরখাদায় ঘন বৃষ্টি,চরম ভোগে সাধারণ জনজীবন ২২ ঘন্টা পর যাদুকাটায় নৌকা ডুবে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার

অতিরিক্ত সচিবকে কোষাধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দেয়ায় মাভাবিপ্রবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রতিবাদ

এনামুল হক তুহিন, মাভাবিপ্রবি
  • প্রকাশিত সোমবার, ১০ মে, ২০২১
  • ৩৮১ বার দেখেছেন
নিয়োগ দেয়ায় প্রতিবাদ

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কোষাধ্যক্ষ পদে পি আর এল ভােগরত অতিরিক্ত সচিবকে নিয়োগ দেয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদ। রবিবার মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. মো: সিরাজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ খাদেমুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রতিবাদ লিপিতে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কোষাধ্যক্ষ নিয়ােগ করা হয়েছে পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের পরিবীক্ষন ও মূল্যায়ন বিভাগের পি আর এল ভােগরত অতিরিক্ত সচিবকে, যিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনার সাথে জড়িত নন। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্বশাসনের মর্ম অনুসারে উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উচ্চ পদে একজন যশস্বী শিক্ষককে পদায়ন করা উচিত বলে মনে করা হয়। যেটি এ নিয়ােগে প্রতিফলিত হয়নি এবং বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগনকে মর্মাহত ও ক্ষুদ্ধ করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয় জ্ঞান বিতরন এবং জ্ঞান সৃষ্টির স্থান। যেখানে একজন কোষাধ্যক্ষ ভাইস-চ্যান্সেলরের সাথে সমন্বয়পূর্বক বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয় সহ জ্ঞান বিতরন ও জ্ঞান সৃষ্টির নানাবিধ কর্মকান্ডে নিজেকে নিয়ােজিত রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামগ্রিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখেন। কাজেই, একজন প্রথিতযশা শিক্ষাবিদই এ পদের যােগ্য বলে মনে করা হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জ্ঞানের উৎকর্ষ সাধন এবং নিত্য নতুন উদ্ভাবনের মাধ্যমে সােনার বাংলা গড়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় গুলােকে স্বায়ত্ব শাসন দান করেছিলেন। জাতির পিতার উচ্চ শিক্ষার দর্শন কে বাধাগ্রস্ত করতে আমলাতন্ত্রের নগ্ন হস্তক্ষেপের মাধ্যমে একজন ননএকাডেমিক সরকারী কর্মকর্তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ পদে নিয়ােগ দেয়া হয়েছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক। উক্ত নিয়ােগাদেশ শিক্ষক সমাজে ক্ষোভের সঞ্চার করেছে, যা বিশ্ববিদ্যালয় গুলাের সামগ্রিক পরিবেশ কে অস্থিতিশীল করে তুলতে পারে।

এ পরিপ্রেক্ষিতে, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, উল্লেখিত নিয়ােগ দানের তীব্র প্রতিবাদ জানায় এবং অবিলম্বে এই নিয়ােগাদেশ বাতিল পূর্বক প্রত্যাহার করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবী জানায়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021
WEB DEVELOPMENT BY KB-SOFTWARES