1. alaminjhalakati@gmail.com : mdalminjkt Jhalakathi : mdalminjkt Jhalakathi
  2. arifkhanjkt74@gmail.com : daynikdesherkotha :
কিশোরগঞ্জে কেঁচো-কম্পোস্ট সারে পাল্টে যাচ্ছে গ্রামীণ হত দরিদ্র নারীদের জীবন - দৈনিক দেশের কথা
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ঠাকুরগাঁওয়ে স্বাস্থ্য বিভাগকে করোনা সামগ্রী দিলো আ.লীগ পিরোজপুর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হাসান আল মামুন এর পিতার মৃত্যুতে সংগঠনের নেতাদের শোক পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে মামলার আসামী ইউপি চেয়ারম্যান মেয়াজ্জেম হেসোনকে আড়াই মাসেও গ্রেফতার না করার অভিযোগ মনিরামপুরের সবার প্রিয় কাশেম স্যার আর নেই কুষ্টিয়া প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যার ঘটনায় পুলিশের এএসআই আটক চাটখিলে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রবাসির সম্পত্তি দখলের অভিযোগ। পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীতে আনসার ও ভিডিপির নতুন ভবনের উদ্বোধন জবির সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা ১০ আগস্ট, ইদের আগেই হবে অ্যাসাইনমেন্ট কিশোরগঞ্জে আগ্রহ বাড়ছে প্লাস্টিকের বস্তায় আদা চাষ কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে মা-ছেলেকে গুলি করে হত্যা

কিশোরগঞ্জে কেঁচো-কম্পোস্ট সারে পাল্টে যাচ্ছে গ্রামীণ হত দরিদ্র নারীদের জীবন

আনোয়ার হোসেন,কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত বুধবার, ৫ মে, ২০২১
  • ৬২ বার দেখেছেন
গ্রামীণ হত দরিদ্র নারীদের জীবন

নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলা ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের কারিগরি সহযোগিতায় স্বল্প খরচে অধিক লাভ পরিবেশবান্ধব কেঁচো কম্পোস্ট সার উৎপাদনে প্রত্যন্ত অঞ্চলের গ্রামীণ দরিদ্র নারীদের পারিবারিক আয় বর্ধক ও ইকো ভিলেজ গড়ে তোলার মাধ্যমে বিষমুক্ত ফসল ফলাতে আগ্রহী করে তুলেছেন।

ইতোমধ্যে কেঁচো কম্পোস্ট সার ব্যবহার করে দরিদ্র পল্লীর নারীরা লাভের মুখ দেখতে শুরু করেছেন। এ সার ব্যবহার করে পারিবারিক পুষ্টি বাগানে হরেক রকম বিষমুক্ত শাকসবজি চাষাবাদের পাশাপাশি ফসলি জমিতে ব্যবহার করে কৃষি খাতকে আরো সম্প্রসারিত করে আর্থিকভাবে সচ্ছলতায় কেঁচো কম্পোস্ট উৎপাদনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলছেন এসব নারী।

বাহাগিলী ইউপি’র উঃ দুরাকুটি পশ্চিম পাড়া গ্রামের রুপালি,মনো জানান, ওয়ার্ল্ড ভিশনের উদ্যোগে প্রশিক্ষণ, প্রদর্শনী প্লটে টিন, চারী (সিমেন্টের তৈরি পাত্র) কেঁচো দিয়ে সহযোগিতা করেছেন। কেঁচো ও গোবর দিয়ে উৎপাদিত জৈব সার জমিতে ব্যবহার করে জমির উর্বরতা শক্তি বৃদ্ধির পাশাপাশি বিষমুক্ত শাকসবজি ফলমূলের ফলনও ভালো হচ্ছে।

এতে করে পারিবারিক পুষ্টির চাহিদা পূরণ হচ্ছে অন্য দিকে সংসারে বাড়তি আয়ও বেড়েছে। আর বিষমুক্ত শাকসবজি ফলমূল বাজারে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে । তারা আরও জানান, এ সারে কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। তাই এ কেঁচো সার রাসায়নিক সারের ঘাটতি পূরণ করে আর যেসব জমিতে এ সার ব্যবহৃত হয় সেসব জমিতে রোগবালাই ও কীট পতঙ্গের আক্রমণ কম হয়।

নাইট্রোজেন, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম জৈব উৎপাদন সমৃদ্ধ কেঁচো সার জমিতে ব্যবহার করে ফসলের ফলন বেশি হওয়ায় এবং পারিবারিক বাড়তি আয় হিসেবে এলাকার অন্য নারীও এ সার উৎপাদনে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021
WEB DEVELOPMENT BY KB-SOFTWARES