1. alaminjhalakati@gmail.com : mdalminjkt Jhalakathi : mdalminjkt Jhalakathi
  2. arifkhanjkt74@gmail.com : daynikdesherkotha :
তাহিরপুরের জাদুকাটা ৩৫ লাখ ৪৪ হাজার টাকার অবৈধ বাল- পাথুর জব্দ করার পর নিলামে বিক্রি - দৈনিক দেশের কথা
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন

তাহিরপুরের জাদুকাটা ৩৫ লাখ ৪৪ হাজার টাকার অবৈধ বাল- পাথুর জব্দ করার পর নিলামে বিক্রি

কামাল হোসেন
  • প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ, ২০২১
  • ৭৯ বার দেখেছেন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:  সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার সীমান্ত নদী জাদুকাটায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধভাবে  নদীর তীর কেটে ও তীর সংলগ্ন জমিতে ৮০ থেকে ১০০ ফুট গর্তকরে শতাধিক পাথর কোয়ারি করে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী বালু-পাথর খেকো সিন্ডিকেট চক্রধারা  উত্তোলন করা ৪০ হাজার ঘনফুট বালি ও ৫০ হাজার ঘনফুট পাথর জব্দ করে তা উন্মুক্ত নিলাম ডেকে বিক্রি করা প্রশাসন ।
বুধবার(২৪ মার্চ) সকল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত  তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহের নেতৃত্বে এ অভিযান চালিয়েছে টাস্কফোর্স।
পরে জব্দ করা ৫০ হাজার ঘনফুট পাথর ও ৪০ হাজার ঘনফুট বালি উন্মুক্ত নিলামে তোলা হলে স্থানীয়রা এতে অংশ নেন। দুপুর ১১ টা থেকে শুরু হওয়া টাস্কফোর্সের পরিচালিত এ অভিযানে জব্দকৃত  বালি পাথর সন্ধ্যা ৭টায় উন্মুক্ত নিলাম প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে শেষ হয়। জানাযায়, স্থানীয় একটি প্রভাবশালী বালু-পাথর খেকো সিন্ডিকেট চক্র প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গত ২/৩ মাস যাবত  ঘাগটিয়া এলাকায় বড়টেক, শিয়ালের টেক ও জালর টেক এলাকায় জাদুকাটা নদীর তীর কেটে ও তীর সংলগ্ন জমিতে কোয়ারীকরে বালু-পাথর উত্তোলন করে আসছে। এই সংবাদের ভিত্তিতে প্রশাসন গতকাল সরেজমিন ঘটনার স্থল পরিদর্শন করে তা জব্দ করে। পরে জব্দকৃত বালু-পাথর উন্মুক্ত নিলামের ডাক দিলে স্থানীয় ২৩ জন ব্যবসায়ী অংশ নিয়ে প্রতি ঘনফুট পাথর ৫২ টাকা এবং বালি প্রতি ঘনফুট ১৩ টাকা দরে কিনে নেন স্থানীয় বাসিন্দা আবু সাঈদ এবং জাকির হোসেন। সরকারি ভ্যাট ও ট্যাক্সসহ পাথরের মূল্য আসে ২৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা এবং বালি ৫ লাখ ৯৮ হাজার টাকার।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহ এ প্রতিবেদককে জানান, জাদুকাটা নদীতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে উত্তোলন করা বালি-পাথর আজ টাস্কফোর্স অভিযান চালিয়ে জব্দ করে, উন্মুক্ত নিলামের মাধ্যমে তা বিক্রি করা হয়েছে।
টাস্কফোর্সের এ অভিযানে এসময় আরও ছিলেন সিলেট বিভাগীয় পরিবেশ অধিদপ্তর অফিসের পরিদর্শক মাঈদুল ইসলাম, র্যাব-৯ (সিপিসি-৩) সুনামগঞ্জের ডিএডি মো. জাহিদুল ইসলাম, তাহিরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল লতিফ তরফদার, লাউড়েরগড় বিওপি’র হাবিলদার মোহাম্মদ আব্দুর রহিম এবং গণমাধ্যমকর্মীসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021
WEB DEVELOPMENT BY KB-SOFTWARES