শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রায়পুরে পৌর মেয়রের উদ্বেগে সড়ক সংস্করণ  কলকতার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সেমিনারে প্রধান অতিথি রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র লিটন ভগবান শ্রী কৃষ্ণের ৫২৫০তম জন্মাষ্টমী উদযাপন  রাজাপুরে মসজিদ কমিটির সহ-সভাপতি কর্তৃক কার্যনির্বাহী সদস্য রাজাপুরে জন্মাষ্টমী উৎসব উদযাপন বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকরে দেশকে চল্লিশ বছর পিছিয়ে দিয়েছে-আমু কিশোরগঞ্জে হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যর পেশা গরুর গাড়ি ও লাঙ্গল তৈরির কাঠমিস্ত্রি নিজেদের ঐক্যই হোক শোক দিবসের শপথ- এমপি হারুন ঝালকাঠিতে নারীর লাশ নিয়ে স্বজনদের বিক্ষাভ ঢাকায় গার্ডার চাপায়  নিহতদের গ্রামের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম

কিশোরগঞ্জে হলুদ সমুদ্রে ভরে গেছে ফসলের মাঠ- লাভের আশায় কৃষক

আনোয়ার হোসেন
  • প্রকাশ শনিবার, ৮ জানুয়ারি, ২০২২
  • ১০২ বার-পাঠিত

 কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি>নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা। এতে উতলে উঠছে কৃষকের মন। হলুদ, সবুজের ঢেউয়ের মিতালিতে নান্দনিক হয়ে উঠেছে বিস্তৃর্ণ ফসলে মাঠ। দিগন্ত ভরা সরিষা ফুলের গন্ধ বাতাসে ভাসছে উপজেলার চারপাশ। এ গন্ধে মৌমাছিরা গা ভাসিয়ে ফুলে ফুলে গুন গুন করে মধু সংগ্রহে মেতে উঠেছেন। সরিষার ফুলে ফুলে ঘুরে বেড়ানো মধু পিয়াসী মৌমাছির গুন গুন-গুঞ্ছরণে সৃষ্ট আবহ মাতিয়ে তুলছে হাজারও প্রকৃতিপ্রেমীদের। বলুনতো এমন আবেশে কে না হারিয়ে যেতে চায়।

শনিবার সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, চলতি বছর দিগুন জমিতে সরিষার চাষাবাদ হয়েছে। যত দুর চোখ যায় শুধু হলুদ সমুদ্রে রাঙানো জমিন। এ জমিনে সরিষার গাঢ় হলুদ বর্ণের ফুলের ম-ম ঘ্রাণ আর সৌরভে মন করে আনচান। দূর থেকে সরিষার ক্ষেতগুলো দেখে মনে হয় প্রকৃতি মাতা যেন তার আপন রং তুলির আঁচড়ে হলুদ সমুদ্রের গালিচায় এঁকেছেন সোনা ঝরারুপ। হলুদ সরিষা ফুলের অবারিত সৌন্দর্যের এমন সোনাঝড়া রুপে কৃষকের চোখে মুখে দুলছে রঙিন স্বপ্ন। আবহাওয়া অনুক’লে থাকলে উপজেলার সর্বত্র সরিষার উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে এমন আশা কৃষকের। এতে গ্রামীণ অর্থনীতিতে সম্ভাবনার সমৃদ্ধি বয়ে আনবে এমন প্রত্যাশা কৃষি বিভাগের। এদিকে শীতের কুয়াশাকে উপেক্ষা করে মাঠে পরিচর্যার কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা।


স্থানীয় কৃষকরা জানান, কৃষি প্রণোদনার সার, বীজ, পরামর্শ পেয়ে ব্যাপক জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে। অন্যান্য ফসলের তুলনায় সরিষার উৎপাদন খরচ কম হওয়ায় এবং গত কয়েক বছর ধরে বাজারে সরিষার ভালো দাম থাকায় চাষিরা দিন দিন সরিষা চাষের দিকে ঝুঁকছেন। এসময় বড়ভিটা ইউপি‘র মেলাবর ক্যামেরার বাজারের আঃ রহিম জানান, কৃষি প্রণোদনার সার, বীজ পেয়ে ২ বিঘা জমিতে সরিষার চাষ করে ভাল ফলনের আশা করছেন।

ইউপি‘র রণচন্ডী গ্রামের ফরিদ ১বিঘা, চাঁদখানা বগুলাগাড়ী গ্রামের আঃ করিম ৩বিঘা, সদরের মুসা হাজি পাড়ার দিলু ২বিঘা জমিতে সরিষার চাষাবাদ করেছেন। তারা জানান, দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের আমদানি নির্ভরতা কমানোসহ সরিষা এখন একটি লাভজনক ফসল। এ ফসল চাষে বালাইনাশক, সেচ,এবং পরিচর্যা তেমন লাগেনা। ১বিঘা জমিতে খরচ হয় ১হাজার থেকে দেড় হাজার টাকা। প্রতি বিঘায় সরিষার ফলন হয় ৬থেকে ৮মন।

বর্তমান বাজারে প্রতি মন সরিষা বিক্রি হচ্ছে ৩হাজার টাকা মন দরে। যা ১বিঘা জমির সরিষা বিক্রি হবে ১৮ থেকে ২৪হাজার টাকা। আর সরিষার উচ্ছিষ্টাংশ গাছ এবং খোসা জ্বালানির পাশাপাশি এর খৈল গো-খাদ্য হিসেবে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।স্বাস্থ্যসম্মত খাটি সরিষার তেল পেতে হলে সরি

ষার বিকল্প নেই। এ ফসল ঘরে তোলার পর বোরো চাষাবাদসহ ভ’ট্টা,শীত কালিন সবজি, আবাদ করতে পারবেন যথা সময়ে।
উপজেলা কুষি অফিসার হাবিবুর রহমান জানান, রাজস্ব খাতের অর্থায়নে প্রদর্শনী বাস্তবায়নের মাধ্যমে ৮শত কৃষককে কৃষি প্রণোদোনা আওতায়, ৪শ ৭০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। সরকারিভাবে কৃষি অফিস থেকে কৃষকদের উচ্চ ফলনশীল সরিষা বীজ, সুষম সার ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। এ বছর আবহাওয়া অনুক’লে থাকায় সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। সরিষার উচ্ছ মূল্যে পেয়ে কৃষকরাও লাভ হবেন। দেশের বাজার ভোজ্য তেলের আমদানি নির্ভরতা কমবে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD