1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
  3. mdtanjilsarder@gmail.com : Tanjil News : Tanjil Sarder
কিশোরগঞ্জে ব্যস্ততা বেড়েছে লেপ-তোষক তৈরির কারিগরদের - দৈনিক দেশেরকথা
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে হারিয়ে যাওয়া জামাই পিঠায় জীবিকা বাকপ্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ অতঃপর পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ বাড়াবাড়ি করলে সরকার যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে: তথ্যমন্ত্রী দশমিনায় হুইল চেয়ার ও শীতবস্ত্র বিতরন তিন মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে না পারলে দুদকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা:সতর্ক হাইকোর্ট শুরু হলো এসএসসি পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ইবিতে ‘পরিবেশ সুরক্ষা ও ভোক্তা অধিকার’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত  মেঘনা ধনাগোধা নদীর উপর মতলব-গজারিয়া সেতু নির্মাণ হলে দেশের দক্ষিনাঞ্চলের অর্থনীতীতে শিল্প বিপ্লব ঘটবে :পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী কিশোরগঞ্জে জেলা পরিষদের নব-নির্বাচিতদের বরণ অনুষ্ঠিত ত্রিশালে ধান কাটা-মাড়াইয়ে ব্যস্ত কৃষক ও শ্রমিকরা

কিশোরগঞ্জে ব্যস্ততা বেড়েছে লেপ-তোষক তৈরির কারিগরদের

আনোয়ার হোসেন
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২২

 79 বার পঠিত

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধ> হেমন্তের ভোরের প্রকৃতিতে কুয়াশাছন্ন সকাল।ঘাসের ডগায় শিশির বিন্দু ।রোদ একটু না চড়তেই মিলিয়ে যাচ্ছে দুপুর ।বিকেল না গড়াতেই বইছে হিমের বাতাস ।সন্ধ্যা নামতেই কুয়াশার পাতলা চাদরে ঢাকা পড়ছে মাঠঘাট।রাতের দুয়ারে চেপে বসছে শীতের বুড়ি।এমন প্রকৃতিতে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে জানান দিচ্ছে আগাম শীতের বারতা।তাই শীতের শুরুতে শীত নিবারণের ্আগাম প্রস্ততি হিসেবে লেপ-তোষক তৈরি করতে ক্রেতারা ভিড় করছেন দোকানে ।এতে ব্যস্ত সময় পাড় করছেন এর সাথে জড়িত কারিগররা ।

আবার অনেকে ব্যস্ত পুরোনো লেপ-তোষক মেরামত করতে।একইসঙ্গে নি¤œ ও মধ্যবিত্ত পরিবারের নারীরা পুরনো কাঁথা মেরামত কিংবা নতুন কাঁথা সেলাইয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন।হাট-বাজারের পাশাপাশি গাঁও গ্রামের পথে-ঘাটে মৌসুমি ব্যবসায়ীরা ফেরিকরে রেডিমট লেপ-তোষক বিক্রি ও তৈরি করে দিচ্ছেন।সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে দেখা যায়,প্রায় অর্ধশতাধিক ছোট-বড় সব দোকানগুলোতে কমবেশি ক্রেতার সরগরম বেড়ে গেছে। ক্রেতারা সাধ্যমত অর্ডার দিচ্ছেন । অর্ডার পেয়ে কারিগররাও খুশি।

এসময় উপজেলা শহরের লেপ-তোষকের কারিগর লাল মিয়া জানান, আগাম শীত পড়তে শুরু করায় ক্রেতারা দোকানে পছন্দমত লেপ-তোষকের অর্ডার দিচ্ছেন । তুলা ও কাপড়ের মান অনুযায়ী দাম নেওয়া হচ্ছে। চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় সময়মত লেপ-তোষক সরবরাহ দিতে অতিরিক্ত ৪জন কারিগর নিয়োগ করা হয়েছে। অন্য সময়ের চেয়ে শীত মৌসুমে বেশি ফরমাশ পাওয়া যায় ।

ফলে সারা বছরের তুলনায় এ সময় তাদের কাজও বেশি করতে হয়।বাজারের পাকুরতলার কারিগর আবু বক্কর ছিদ্দিক বাক্কু জানান,তুলা ও কাপড়ের মান অনুযায়ী চার-পাঁচ হাত মাপের একেকটি লেপ-তোষক ১হাজার ২০০থেকে, ১ হাজার ৫০০টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতিটি লেপ-তোষকে কারিগররা মজুরি পাচ্ছেন ১৫০থেকে ২০০ টাকা।

তবেএ বছর জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়ায় বেড়েছে শ্রমিক ও লেপ-তোষক তৈরির খরচ । লেপ-তোষক প্রতি ২০০ থেকে২৫০টাকা বেড়ে গেছে।একেকটি তৈরি করে ২০০থেকে ৩০০টাকা আয় হয়। ক্রেতারা জানান, ঠান্ডা বাড়ছে। তাই আগেভাগে লেপ-তোষক তৈরি করে নেয়া হচ্ছে।মাগড়া চেকপোষ্ট বাজারের লেপ-তোষকের কারিগর রফিকুল বলেন শীত নামতে শুরু করায় ক্রেতারা দোকানে ভিড় জমাচ্ছেন।বিক্রিবাট্রাও ভাল ।

অনেকেই আগেভাগে লেপ-তোষক,জাজিম,বালিশ নতুনভাবে তৈরি ও পুরনোগুলো মেরামতের অর্ডার দিচ্ছেন। উত্তর দুরাকুটি গামের নি¤œ আয়ের পরিবারের নারী জেন্নাতোন বলেন,লেপ-তোষক কেনার সামর্থ না থাকায়,কাঁথা সেলাই করছি শীত নিবারণের জন্য। লেপ-তোষকের ফেরিওয়ালা সবুজ জানান,শীতের সময় লেপ-তোষকের চাহিদা থাকায় গ্রামে গ্রামে ঘুরে তা প্রতিটি বিক্রি করে১৫০ থেকে ২০০টাকা লাভ হয়।যা সারা দিনে ৭০০থেকে৮০০টাকা আয় হয় ।
,

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park