1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
বেতন না পাওয়ায় ঠাকুরগাঁও পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শিক্ষকদের মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী - দৈনিক দেশেরকথা
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১০:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশনা কিশোরগঞ্জে থাই গেম ও  ভিসা   প্রতারকচক্রের ৫ সদস্য আটক  গলাচিপায় কবর ঘিরে মাজার বাণিজ্য,করা হচ্ছে জটিল ও কঠিন রোগের চিকিৎসা শাহীকে ঈদুল আজহায় ৪ লাখ টাকায় বেচতে চান মুকুল মিয়া  কিশারগঞ্জ থাই ও ভিসা প্রতারণার অভিযােগে  ৩ যুবক কারাগারে কুয়াকাটা সৈকতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান লিফলেট বিতরণ গরমে কদর বাড়ায় নলডাঙ্গায় তালের শাঁস বিক্রিতে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক সদরপুরে জমি ও গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ স্বাস্থ্য পরীক্ষায় সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়লেন ওবায়দুল কাদের

বেতন না পাওয়ায় ঠাকুরগাঁও পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শিক্ষকদের মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী

মোঃ ইলিয়াস আলী
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২
দেশেরকথা

 93 বার পঠিত

শিক্ষকের চাকুরি রাজস্বখাতে স্থানান্তর ও আঠারো মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে অবস্থান ও মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছে পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শিক্ষকরা। মঙ্গলবার ১৮ই জানুয়ারি সকালে পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শহীদ মিনার চত্বরে ও মুল ফটকের সামনে এ কর্মসুচি পালন করেন তারা।

এসময় বাংলাদেশ পলিটেকনিক টিচার্স ফেডারেশন (বিপিটিএফ) ঠাকুরগাঁও পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট শাখার সভাপতি মোঃ আলমগীরসহ শিক্ষকরা বলেন, কারিগরি শিক্ষার সম্প্রসারনের লক্ষ্যে ২০১২ ও ২০১৪ সালে একটি প্রকল্পের মাধ্যমে সারাদেশে ১০১৫ জনকে নিয়োগ প্রদান করা হয়। যার মধ্যে ৭৭৭ জন শিক্ষক কর্মরত আছেন।

পরবর্তিতে মাননীয় প্রধাণমন্ত্রী ২০১৯ সালে চাকুরি রাজস্বখাতে স্থানান্তরের প্রস্তবনা প্রদান করেন। শিক্ষা মন্ত্রনালয় ৭৮৬ জন শিক্ষককে সাময়িকভাবে বহাল রেখে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার নির্দেশনা প্রদান করেন।

নির্দেশনা মোতাবেক নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকরা কার্যক্রম পরিচালনা করায় প্রকল্প মেয়াদ শেষে বেতন পরিশোধের পর ৭৮৬ জন শিক্ষকের চাকুরি রাজস্বখাতে স্থানান্তরের জন্য শিক্ষামন্ত্রী জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে প্রতিমন্ত্রী বরাবরে ডিও পত্র দেন।

কিন্তু তার পরেও বিষয়টি দীর্ঘসুত্রতার কারনে স্থানান্তর প্রক্রিয়া বাস্তবে রুপ নেয়নি। ফলে ২০২০-২১ পর্যন্ত সকল শিক্ষকের ১৮ মাস ধরে বেতন বকেয়া বন্ধ রয়েছে। অবিলম্বে শিক্ষকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ ও দ্রুত রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবি করেন তারা অন্যথায় সারাদেশে কঠোর কর্মসুচি দেয়ার হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তারা।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park