শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘আশানি”র প্রভাবে কুয়াকাটার সমুদ্র সৈকত  কিছুটা উত্তাল রয়েছে।

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ
  • প্রকাশ সোমবার, ৯ মে, ২০২২
  • ২৯ বার-পাঠিত

কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি>প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ প্রভাবে পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল রয়েছে। আকাশে মেঘের ঘনঘটা বিরাজ করছে। রবিবার মধ্যরাত থেকে সোমবার  বিকেল পর্যন্ত উপকূলীয় এলাকার কোথাও কোথাও টানা বৃষ্টিপাত হচ্ছে। আজ সকাল নয়টায় জেলায় ৪.৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে স্থানীয় আবহাওয়া অফিস। বাতাসের চাপ কিছুটা বেড়েছে। সমুদ্র সৈকত স্বাভাবিকের তুলনায় কিছুটা উত্তাল রয়েছে।
সোমবার (৯ মে) ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ সকাল ৬ টায় পটুয়াখালীর পায়রা সুমুদ্র বন্দর থেকে ৯৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে, চট্রগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ১০৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ১০২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং মোংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ১০২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিলো।এটি আরো উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৮৯ কিলোমিটার, যা দমকা বা ঝরো হাওয়া আকারে ১১৭ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই পটুয়াখালীর পায়রাসহ সব বন্দর সমূহকে দুই নম্বর দূরবর্তী হুশিয়ারী সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। সাগর উত্তাল দেখে কিনারায় ফিরতে শুরু করেছে জেলেরা।
কুয়াকাটা আশার আলো জেলে সমবায় সমিতির সভাপতি, নিজাম শেখ বলেন, উত্তল হয়ে উঠছে সমুদ্র সৈকত, তাই কুয়াকাটা জেলেরা কিনারা এসেছে । তিনি আরো বলেন,নির্দেশ অনুযায়ী ইতোমধ্যে অধিকাংশ মাছ ধরা ট্রলার মহিপুর ও আলীপুর মৎস্য বন্দরের পোতাশ্রয়ে আশ্রয় নিলেও কিছু সংখ্যক ট্রলার এখনও গভীর সাগরে অবস্থান করছে। তবে আজ সন্ধ্যার মধ্যে সকল মাছধরা ট্রলার ঘাটে পৌছাবে বলে জানিয়েছে। 
এদিকে বৃষ্টির ধারা অব্যাহত থাকলে এবং ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ উপকূলে আঘাত হানলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে মুগডাল ও বোরো ধান চাষিরা। চলতি বছরে জেলার ১৬ হাজার ৯৭০ হেক্টর জমিতে বোরোর আবাদ হয়েছে। ইতোমধ্যে ক্ষেতের ৮০ শতাংশ ধান পেকেছে। তবে ক্ষতি কিছুটা কমাতে কৃষকদের আগে ভাগে ধান কেটে ঘর তোলার পরামর্শ দিয়েছে কৃষি বিভাগ। 
ঘূর্ণিঝড় আসানি প্রভাবে কুয়াকাটা ছাড়তে শুরু করেছে পর্যটক, ঈদের ছুটিতে আনন্দ সময় কাটাতে হাজারো পর্যটকের মিলন মেলা বসছে কুয়াকাটায়, তবে ঘূর্ণিঝড়ের আশংকা শুনে সমুদ্র সৈকত ত্যাগ করে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছুটে চলছে শত শত পর্যটক ।
পটুয়াখালী জেলা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদ রানা জানান, ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ বর্তমানে উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হচ্ছে। এটি মূলত ভারত উপকূল অতিক্রম করার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এখনো নিশ্চিত কিছু বলা যাচ্ছেনা।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD