বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:১৩ অপরাহ্ন

পরীক্ষায় নকল করা বন্ধ হোক

রিদুয়ান ইসলাম 
  • প্রকাশ সোমবার, ৩ জানুয়ারি, ২০২২
  • ৯২ বার-পাঠিত
শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড। শিক্ষা মানুষের বিবেক ও মনুষ্যত্ব বোধ জাগ্রত করে। একটি শিক্ষিত জাতি পারে একটি সুন্দর, সুশীল, সভ্য সমাজ গড়ে তুলতে। শিক্ষা অন্ধকার থেকে আলোর পথ দেখায়।
কিন্তু বর্তমান করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। এই সময়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করানো হয় অনলাইনে। কিন্তু অনলাইন ক্লাস করে শিক্ষার্থীরা সশরীরে ক্লাসের মত পড়াশোনা উপলব্ধি করতে পারেনি।
অনলাইন ক্লাসের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে শিক্ষার্থীদের মাঝে। করোনার সংক্রমণ কিছুটা কম হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়। করোনার সময়ে অনলাইন ক্লাসের কারণে পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু পরীক্ষার হলে অনৈতিক পদ্ধতি অবলম্বন করছে কিছু কিছু শিক্ষার্থী।
তারা পরীক্ষার হলে নকল করে পরীক্ষা দিচ্ছে। তারা নকল করার জন্য হাতে, বেঞ্চে লিখে রাখে। এমনকি কাগজে, পকেটে, মানি ব্যাগে, জুতার নিচে লুকিয়ে রাখে এবং ওয়াশরুমে বই রেখে আসে।
একজন পরিশ্রমী শিক্ষার্থী সারা বছর পড়াশোনা করে নকল করা শিক্ষার্থীদের কাছে পরীক্ষার ফলাফলে পিছিয়ে পড়ছে। প্রকৃত শিক্ষার বিকাশ না ঘটে শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংসের দিকে যাচ্ছে।
নকল করার কারণ অনলাইন ক্লাসের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার জন্য ভাল প্রস্তুতি নিতে পারে নি, এমন মন্তব্য অনেক শিক্ষার্থীদের। কিন্তু নকল করে পাস করে এই শিক্ষার্থীরা আগামীর বাংলাদেশ কিভাবে নেতৃত্ব দেবে? কি শিখবে তাদের থেকে ভবিষ্যত প্রজন্ম? যতটুকু সম্ভব নিজের মেধা, পরিশ্রম দিয়ে পড়াশোনা করে পরীক্ষা দেওয়া। শুধু একটা সার্টিফিকেটের ভালো রেজাল্ট দিয়ে মনুষ্যত্ব অর্জন করা যায় না। সুতরাং শিক্ষার্থীদের উচিত নকল পরিহার নকল পরিহার করা।
লেখক: মোঃ আবদুল্লাহ আলমামুন
শিক্ষার্থী, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা 
এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customize By Theme Park BD