1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
  3. mdtanjilsarder@gmail.com : Tanjil News : Tanjil Sarder
দিন দিন পর্যটকের কাছে পরিচিতি পাচ্ছে, কুয়াকাটার সানসেট ব্লক পয়েন্ট - দৈনিক দেশেরকথা
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ব্যাংকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত জমার ক্ষেত্রে গ্রাহককে কোনো ধরনের প্রশ্ন না করার নির্দেশ: বাংলাদেশ ব্যাংক আবারও বাড়ল এলপিজি গ্যাসের দাম কিশোরগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ মামলায় প্রধান শিক্ষক জেল হাজতে কিশোরগঞ্জে পারিবারিক পুষ্টির চাহিদা পুরণে পেঁপের চারা বিতরণ লেখাপড়া করতে চায় প্রতিবন্ধী রজনী এবার বাবার পদাংক অনুসরণ করে সিনেমায় নাম লেখালেন ডিপজলকন্যা ওলিজা মনোয়ার দেশেরর ইতিহাসে সর্বোচ্চ সোনার দামের রেকর্ড ইবিতে ছাত্র ইউনিয়নের দিনব্যাপী ‘সাংগঠনিক কর্মশালা’ অনুষ্ঠিত আগামীকাল রবিবার চট্টগ্রামে ৩০টি প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জুন মাসের পর ডিজেল দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ

দিন দিন পর্যটকের কাছে পরিচিতি পাচ্ছে, কুয়াকাটার সানসেট ব্লক পয়েন্ট

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ
  • প্রকাশ শুক্রবার, ২৬ আগস্ট, ২০২২

 42 বার পঠিত

কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি>পটুয়াখালীর সাগর কন্যা কুয়াকাটার সকল সৌন্দর্যের স্থান গুলোর সাথে, যুক্ত হয়েছে গভীর সমুদ্র উপভোগ করার নতুন এক মাত্রা। কুয়াকাটার সৌন্দর্যের স্পটগুলোর পাশাপাশি সমুদ্রের দক্ষিণা হাওয়া,সমুদ্রের ঢেউ, সূর্য অস্ত্র উপভোগ করার একটি সুন্দর স্থান।

কুয়াকাটার চৌরাস্তা পয়েন্ট থেকে পশ্চিম দিকে কিছুক্ষণ চলতেই , দু চোখে ভেসে আসবে বেরিবাঁধ রক্ষা জন্য ব্লক দিয়ে সাজানো , একদিকে বেরিবাঁধ রক্ষা পেয়েছে অন্যদিকে সমুদ্র সৈকত উপভোগ করার এবং বন্ধুদের সাথে বসে আড্ডা দেওয়ার স্থান হয়েছে৷ কুয়াকাটার একঝাঁক মেধাবী তরুণ এই স্থানটির নাম দিয়েছে সানসেট ব্লক পয়েন্ট।

করোনা কালীন সময়,অর্থাৎ ২০২০ সালে ঘর বন্দী হয়ে পড়ে সারা বিশ্ব, বন্ধ হয়ে যায় স্কুল কলেজ। চাকরি, স্কুল কলেজ সবকিছু ছেড়ে তাদের নিজ জন্মভূমি কুয়াকাটায় চলে আসে। সারাদিন ঘর বন্দি থাকার পরে, বিকেল বেলা এক ঝাঁক শিক্ষিত যুবক প্রতিদিনই সময় কাটাতো ব্লকের উপরে। ধীরে ধীরে স্থানীয়দের কাছেও ভালো লাগতে শুরু করে স্থানটি, শেষে ওই এক ঝাঁক মেধাবী যুবক স্থানটির নামকরণ করে সানসেট ব্লক পয়েন্ট। নামকরণ কারী, মাসুম আল বেল্লাল,ডাঃ ইসমাইল ইমন,মোঃ ইব্রাহিম ওয়াহিদ,মোঃ এস এম রাসেল সহ প্রমুখ। এই স্থানটি সবচেয়ে বেশি জমজমাট হয়ে ওঠে রমজান মাসে।

সানসেট ব্লক পয়েন্ট কুয়াকাটা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে অবস্থিত, এই স্থানটি এখন দিন দিন পর্যটক এর কাছে পরিচিত পাচ্ছে। সকাল থেকে রাত ১২টা কি ১টা পর্যন্ত পর্যটক সহ স্থানীয়দের আনাগোনা থাকে। বিশেষ করে সন্ধ্যাবেলায় পর্যটকের আনাগোনা বাড়ে। পাহারাদারী থাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সরজমিনে পর্যটকরা বলেন, কুয়াকাটায় ঘুরতে আসার পরিপূর্ণতা পেয়েছি।এর কারণ দক্ষিণের হাওয়া বাতাস, সমুদ্রের শাশা শব্দ মুগ্ধ করছে আমাদের। পর্যটকরা আরো বলেন, সুন্দর পরিকল্পনা নিয়ে যদি এই সানসেট ব্লক পয়েন্টটি,সাজানো হয় তাহলে পর্যটকের সময় কাটানোর একটি সুন্দর স্থান হবে। সবচেয়ে বেশি সুন্দর লাগে জোয়ারের বড় বড় ঢেউ এসে ধাক্কা লাগে ব্লকের উপরে, দেখতে এক সামুদ্রিক ঝরনার অনুভূতি।

নামকরণকারী, ডাঃ ইসমাইল ইমন জানান, মহামারি করোনায় আমরা এলাকায় চলে আসি, এবং ঘরবন্দী থাকতে থাকতে অনেকটা বিরক্ত ফিল করতাম। শেষে ঘর থেকে বেরিয়ে সমুদ্রের পাড়ে ব্লকের উপরে আমি বসতাম,ধীরে ধীরে এলাকার আরো কিছু মানুষ একত্র হই। এবং একই সময়ে ইব্রাহিম ওয়াহিদ বলেন, প্রতিদিন বিকেলে মুক্ত আকাশের নিচে বসে সূর্যাস্ত, সমুদ্রের গর্জন, দক্ষিণের হাওয়া উপভোগ করতাম, এবং ধীরে ধীরে দেখি এই স্থানটি সবার কাছে পরিচিতি পাচ্ছে, তাই আমরা আনন্দ করে এটার নামকরণ করি সানসেট ব্লক পয়েন্ট। এখন দেখি সবার কাছেই পরিচিত এই নামটি।

কুয়াকাটা পৌরসভা ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, মোঃ মনির শরিফ বলেন, কুয়াকাটার এই সানসেট ব্লক পয়েন্ট আমার ওয়ার্ডে রয়েছে, আমি সবসময় ব্লক পয়েন্ট পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা রাখার জন্য চেষ্টা করছি। ব্লক দেওয়ার কারণে কুয়াকাটা সৌন্দর্য বেড়ে গেছে,  বেড়ে গেছে আনন্দ উৎসবে জায়গা

তিনি আরো বলেন,অতি তাড়াতাড়ি যদি বেরিবাধ রক্ষার জন্য কাজ না করা হয়, তাহলে হারিয়ে যাবে এই সৌন্দর্য ৷ দ্রুত এই সৌন্দর্য রাখার জন্য অসমাপ্ত কাজগুলো দ্রুত সমাপ্ত করার অনুরোধ জানায় ৷

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park