বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৯:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আত্রাইয়ে দর্শনীয় ষাঁড় সম্রাটের দাম হাঁকা হয়েছে ১২ লাখ টাকা রাণীশংকৈলে পুকুড়ের পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু জামালপুরে স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের অভিযোগ,থানায় মামলা মতলব উত্তরে ডাক্তারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় পাল্টাচ্ছে হাসপাতালের পরিবেশ, বাড়ছে সেবার মান কাল থেকে গবিতে ঈদুল আযহার ছুটি  শুরু দম ফেলার ফুরসত নেই ত্রিশালের কামারদের! ছেলের সামনে বাবাকে  কুপিয়ে হত্যা, পিতা-পুত্র গ্রেফতার… রাণীশংকৈলে বিপুল উপস্থিতিতে শিক্ষক আইরিনের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন চলনবিলে কৃষকের ঘরে উঠতে শুরু করেছে নতুন পাট, কৃষকের ফুটে উঠেছে রঙিন হাঁসি পাবনায় তীব্র লোডশেডিংয়ে দুর্ভোগে সাধারণ মানুষ, ঈদ বাজারে লোকসানের আশঙ্কা

ত্রিশাল উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন প্রধানমন্ত্রীর উদ্ভোধনের চার বছর হলেও আজও বুঝে পায়নি মুক্তিযোদ্ধারা

ইমরান হাসান
  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ৯ জুন, ২০২২
  • ৫৮ বার-পাঠিত

ত্রিশাল প্রতিনিধি>ময়মনসিংহের ত্রিশালে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেও মুক্তিযোদ্ধাগনদের মাঝে এখনও তা হস্তান্তর করা হয়নি।

বাঙ্গালি জাতীর সূর্যসন্তান ১৯৭১ সালে যে দেশ স্বাধীন করেন তার নাম স্বাধীন বাংলাদেশ। রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে এ দেশ স্বাধীন হয়। প্রতিটি উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কমপ্লেক্স ভবন নির্মান করা হয়। তা ২০১৮ সালে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ত্রিশাল উপজেলায় নির্মান করা হয় এ ভবন।

সরেজমিনে দেখাযায়, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মান করা হলেও তা এখন হস্তান্তর করা হয়নি মুক্তিযোদ্ধাগনদের মাঝে।

এ ভবন পড়ে আছে তালাবদ্ধ অবস্থায়। ভবনের সামনে ঝুলছে একটি সাইনবোর্ড। সাইনবোর্ডে লেখা ভবনের ১ম ও ২য় তলা দোকান ভাড়া দেয়া হবে। ২০১৮ সালে উদ্ধোধনের পর থেকে পড়ে আছে এভাবে।

এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল মান্নান জানান, ২০১৮ সালে এ ভবনের উদ্বোধন করা হলেও তা আমাদের বুঝিয়ে দেওয়া হয়নি।

এখন এ ভবনের প্রশাসক হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। আর আমাদের মধ্যে বেশীর ভাগ মুক্তিযোদ্ধা বৃদ্ধ। তিন তলায় পায়ে হেটে আমাদের পক্ষে উপরে উঠা সম্ভব নয়। আর এ ভবনে বিদ্যুৎ ও পানির সমস্যা রয়েছে।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আক্তারুজ্জামান জানান, আমি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা হওয়ায় ডিসি মহোদয় আমাকে এ ভবনের প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন।

ভবনে বিদ্যুৎ ও পানির কিছু সমস্যা রয়েছে। যৌথ সভা ডেকে মুক্তিযোদ্ধাগনদের মাঝে সকল সমস্যার সমাধান করে ভবন বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD