বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ১১:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জামালপুর রেজাল্ট নিয়ে বাড়ি ফেরা হলোনা সমৃদ্ধির কিশোরগঞ্জে টুংটাং শব্দে সরগরম হয়ে উঠেছে কামারপল্লী ফের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কোনো পরিকল্পনা নেই ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর কন্যাকে কটুক্তি করা সেই যুবক রনি রিমাণ্ডে সুন্দরগঞ্জে মাদক দ্রব্য রোধকল্পে কর্মশালা পিরোজপুরে ৬ জন সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারীদের শুদ্ধাচার পুরস্কারের চেক তুলে দেন জেলা প্রশাসন মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফের চাল বিতরণ মতলব উত্তরে মহিলা যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা র‍্যালি ও আলোচনা সভা রেওলয়েতে আউটসোর্সিংয়ে জনবল নিয়োগের প্রতিবাদে ঈশ্বরদীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন পাবনার ঈশ্বরদীতে ‘পাগলা রাজা’ বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় রেজাউল

ড্রেন নির্মাণে ডিএসসিসির খোড়াখুড়িতে ধসে পড়লো জবির সীমানাপ্রচীর-ঘরবাড়ি

রিদুয়ান ইসলাম
  • প্রকাশ সোমবার, ৬ জুন, ২০২২
  • ৪৫ বার-পাঠিত


জবি প্রতিনিধি>ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ড্রেন নির্মাণের জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের খোঁড়াখুঁড়িতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) সীমানা প্রাচীরের বড় একটি অংশ এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ঘরবাড়ি ভেঙে পড়েছে।

এতে কোনো হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও বিপাকে পড়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীরা। সন্তান-পরিবার নিয়ে থাকা ও আসবাবপত্র সরানো নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তারা।

সোমবার (০৬ মে) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশ্ববর্তী  শাঁখারিবাজার রাস্তা সংলগ্ন ড্রেনেজ কাজ করতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে। 

সরেজমিনে দেখা যায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক থেকে শুরু করে এর সীমানাপ্রচীরের পুরো অংশের বাহিরে ড্রেনের জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকরা বিগত এক সপ্তাহ ধরে খোড়াখুড়ির কাজ শুরু করে।

প্রধান ফটক ও রাস্তা সংলগ্ন অংশে ভাঙন দেখা না দিলেও শাঁখারিবাজার রাস্তার পাশের অংশে বিশ্ববিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর ও কর্মচারীদের ডরমিটরির একাংশ ভেঙ্গে পড়ে৷ সেখানে ড্রেনের পানিতে ঘরের আসবাবপত্র ডুবে থাকতে দেখা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার বিকেলে হটাৎই শ্রমিকরা কাজ করার সময় সীমানাপ্রাচীরের দেয়াল ভেঙ্গে পড়তে শুরু করে৷ এসময় তারা দ্রুত সেখান থেকে সড়ে যাওয়ায় কোনো ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেনি। তবে বেশ কয়েকজন হালকা আহত হয়েছেন।

কর্মচারীরা বলেন, আজকে বিকালের দিকে দেয়াল ও ঘর ভেঙে পড়ে। ভাঙার সময় কেউ ঘরে ছিল না, তাই হতাহত হয়নি। তবে ড্রেনের পানিতে অনেক জিনিসপত্র পড়ে নষ্ট হয়ে গেছে।

এ ছাড়াও, বাকি জিনিসপত্র সরিয়ে নেওয়া কঠিন হয়ে যাবে। রাতে কোথায় থাকবো, এটাও সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অতি দ্রুত কিছু না করলে সমস্যায় পড়বো আমরা।

এদিকে ঘটনা বর্ণনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল জানান, শাখারীবাজার সংলগ্ন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৩০০ গজ সীমানাপ্রাচীর সহ কর্মচারীদের ঘর ভেঙে পড়েছে। ঘটনার পর পরই সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা সহ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকদের ডেকে পাঠানো হয়।

পরবর্তী তারা নিরাপত্তা হিসেবে আজ রাতের মধ্যেই আপাতত টিনের বেড়া লাগিয়ে দেবে এবং আগামীকাল সকাল থেকে দেয়ার তৈরির কাজ করবেন বলে জানান। ধসে যাওয়ার সময় সবাই ঘরের বাইরে ছিল বলে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

দুঃখ প্রকাশ করে সিটি করপোরেশনের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোহাম্মদ প্যারিশ বলেন, আমরা এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য অনুতপ্ত। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখেছি। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজনকে আসতে বলা হয়েছে। তারা আসলে দ্রুতই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এদিকে এই কাজের ঠিকাদার সোহেল মিয়া বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। আমরা খুব দ্রুতই নতুন করে দেয়াল করে দেবো।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD