1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : Daynik Kotha : Daynik Kotha
  3. mdtanjilsarder@gmail.com : Tanjil News : Tanjil Sarder
জামালপুরে সাংবাদিকের বাড়িতে দুর্বৃত্তদের হামলা ও ভাংচুর, আহত ১ জন - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সোনাইমুড়ী থানার নেতৃত্বে সাজা পরোয়ানাভূক্ত আসামী গ্রেফতার রাজাপুরে স্ত্রীকে হত্যা করে খাটের নিচে লুকিয়ে রাখলেন স্বামী প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে সন্মান জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে করে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করলেন আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মহিউদ্দিন মহারাজ কিশোরগঞ্জে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক ব্র্যাকের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত রাণীশংকৈলে বিশ্ব নদী দিবসে র‍্যালি ও আলোচনা সভা কিশোরগঞ্জে প্রক্সি পরীক্ষার্থী আটক কিশোরগঞ্জে বিষপানে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা রাণীশংকৈলে দুর্গাপূজার প্রতিমার র্পূণ রূপ দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৃৎ শিল্পীরা কাঁচারাস্তা পাঁকা করনের দাবিতে দশমিনায় মানববন্ধন দ্বিতীয় বারের মতো ফাইনালে গণ বিশ্ববিদ্যালয়

জামালপুরে সাংবাদিকের বাড়িতে দুর্বৃত্তদের হামলা ও ভাংচুর, আহত ১ জন

শাহ্ আলী বাচচু
  • প্রকাশ রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২২

 4 বার পঠিত

জামালপুর প্রতিনিধি> সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ব‍্যান্ডলবিহীন বুলেট বিড়ি ও নকল আজিজ বিড়ি ব‍্যাবসা  করে আসছে   দিন ধরে। এছাড়াও   জামালপুরে ব‍্যান্ডোলবিহীন চলছে বুলেট বিড়ি।জামালপুরে সদরের প্রায় প্রতিটি হাট বাজারে নকল ব্যান্ডরোল ও ব্যান্ডরোলবিহীন বুলেট বিড়ি ও নকল আজিজ বিড়িতে সয়লাব। সদরের শরিফপুরের রাঙামাটিয়ায় বুলেট বিড়ির মালিক শেখ ফরিদ প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে অবৈধ ব্যবসা পরিচালনা করে লুটে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। প্রশাসন বলছে বুলেট বিড়ি প্রস্তুত ও বিক্রি স্থগিত রয়েছে।

জামালপুর সদর উপজেলার বুলেট বিড়ি দীর্ঘদিন ধরেই গোপনে বাজার জাত করে আসছে। জামালপুর সদরের শরিফপুর বাজার, গোদাশিমলা বাজার, পাবই বাজার, বারোয়ামারী চর, তুলশিপুর বাজার, শাহবাজপুর ও সরিষাবাড়ির বাউসী বাঙালী বাজারসহ আশপাশের বিভিন্ন দোকানে সয়লাব হয়ে পড়েছে। এর মালিক শেখ ফরিদ আগে অন্যের বাড়িতে শ্রমিকের কাজ করতো। এক পর্যায়ে সে নিজ নামে বিড়ি লাইসেন্স (নং- ০০৩০৫৯২৯৭০৪০৭) নিয়ে বিড়ির ব্যবসা শুরু করেন।

এতে সরকারের রাজস্ব ফাকি দিয়ে বিড়ি বিক্রির ফলে অল্প দিনেই আঙুল ফুলে কলাগাছ বনে যায়।  সংবাদ প্রকাশে ফরিদের দূর্নীতি পত্রিকায় ছাপা হলে পর নজরে পড়ে কাষ্টমস এন্ড ভ‍্যাটের কতৃপক্ষের।বন্ধ হয়ে যায় বিড়ি  তৈয়িরীর কারখানা। পরে কাষ্টম কর্মকর্তাকে ম‍্যানেজ করে বিড়ি তৈয়ারী শুরু করে।এব‍্যাপারে জাতীয় দৈনিক  ও স্থানীয় দৈনিক সহ বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে বুলেট বিড়ি মালিক শেখ ফরিদ প্রতিবেশি সাংবাদিক শাহ্ আলী বাচ্চুর উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। খোঁজতে  থাকে নানা পথ। সাংবাদিকের ছেলের স্ত্রী জামালপুর গেলে তাকে একা পেয়ে নানা ভাবে হেনস্থা করে।

এ ঘটনার পর সাংবাদিকের পুত্রবধূ বাদী হয় বিজ্ঞ আদালতে মামলা করে। যাহার নং সিআর৫৪১(১)২২, মামলায় বিবাধীরা জামিনে মুক্ত হয়ে মামলা তুলে নেয়ার জন‍্য সাংবাদিক পরিবারকে  হুমকি দিয়ে চলেছে। গত ২৬ জুলাই ০২২ ইং তারিখে সাংবাদিকের বাড়িতে আসিয়া অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। সাংবাদিকের পুত্র মেহেদী হাসান কনক ঘর থেকে বাহির এসে শেখ ফরিদ গং দের গালাগালি না  করার নিষেধ করায় দুর্বৃত্তরা মামলার সাক্ষীসহ সাংবাদিক পরিবারের  লোকজনকে   খুন করার হুমকি  দেয়।

এঘটনার পর ওই দিন জামালপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করা হয়। যাহার নং ১৫০২ তাং ২৬/৭/০২২ইং। থানায় জিডি করার পর শেখ ফরিদের পরিবার ও তার সাঙ্গপাঙ্গ  কিছুদিন নীরভ থাকলেও আবার গত ৯ সেপ্টেম্বরে সন্ধ্যায় মামলা জিডি  উঠানোর জন্য হুমকি দিতে থাকে। জিডির সাক্ষী ও বাদী বাহিরে আসলে শেখ ফরিদের সাথে থাকা লোক জন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। পরে প্রতিবেশী লোক জন আসলে তারা চলে যায়। ঘটনার পর ওই দিন রাতে আরও একটি জিডি করা হয়েছে। যাহার নং ৪৫০,তাং ৬/৯/০২২ইং। জিডির পর জামালপুর থানার  এস আই মামুন গত শনিবার  ১০ সেপ্টেম্বর তদন্ত করে সত‍্যতা পেলে শেখ ফরিদের স্ত্রী পারুলকে হুমকি ও গালাগালি কররে নিষেধ করেন। থানা পুলিশ চলে যায়।

শেখ ফরিদ তার নিজেস্ব   সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে রাঙ্গামাটিয়া গ্রামের আবুল বিড়ি ফ‍্যাক্টরীর মালিক হারুন অর রশিদের বাড়িতে গোপন মিটিং করে রাত ১১টির সময়   শেষ করে সাংবাদিক শাহ্ আলীর বাড়িতে  দলবল নিয়ে   অর্তকৃতভাবে বাড়ীঘরে হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা  সাংবাদিক পরিবারের কাউকে না পেয়ে, মামলার সাক্ষী সাংবাদিক শাহ্ আলীর বাচ্চুর চাচাতো ভাই আনোয়ার হোসেনকে তার মনোহরী দোকানে একা পেয়ে দেশীয় অস্ত্র  দিয়ে তাকে মাথায় আঘাত করে। আনোয়ার জ্ঞানশূন‍্য হয়ে পড়ে।  দুর্বৃত্তরা দোকানে প্রবেশ করে নগদ টাকা পয়সা ও দোকানের জিনিস নিয়ে যায়। ঘটনা চলা সময় জামালপুর থানা পুলিশকে    মোঠোফোনে জানালে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।  আহত আনোয়ার হোসেনকে মুমূর্ষু অবস্থায় রাতেই জামালপুরে সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মামলার প্রস্ততি চলছে। বর্তমানে দুর্বৃত্তরা পলাতক রয়েছে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park