বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:২১ অপরাহ্ন

ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষীকিকে কেন্দ্র করে ববিতে দু’গ্রপের সংঘর্ষে আহত ১ 

আকরাম খান ইমন
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারি, ২০২২
  • ২২ বার-পাঠিত
ববি প্রতিনিধি>বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষীকি উদযাপনকে কেন্দ্র করে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (ববি) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় একজন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। আহত শিক্ষার্থী রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ফাত্তাউর রহমান রাফি।
মঙ্গলবার (০৪ জানুয়ারী) দুপুর সাড়ে ১২ টায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, বেলা ১২ টায় বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাদেক আব্দুল্লাহর সমর্থক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের “আল আমিন – রিয়াজ” গ্রুপ এবং “রিদম-রুম্মান গ্রুপ” পৃথক পৃথক মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাউন্ড ফ্লোরে জমায়েত হয়। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ দফা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি স্তম্ভে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে কেক কাটেন নেতা কর্মীরা।  কেক কাটা শেষে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কে মিছিল নিয়ে বের হলে সামনে যাওয়া নিয়ে দুই গ্রুপে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
আল আমিন – রিয়াজ গ্রুপের রিয়াজ উদ্দীন জানান, মিছিলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ম ব্যাচের  ভূতত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের আল সামাদ শান্ত আমার পাঞ্জাবি টেনে ছিড়ে ফেলে। এটা নিয়ে তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে শান্ত ও শরিফুল আমার ছোট ভাই ফাত্তাউর রাফির উপর হামলা করে। এতে রাফির নাক, ঠোট ফেটে যায়।
রিদম-রুম্মান গ্রুপের সৈয়দ রুম্মান ইসলাম জানান, জুনিয়রদের মধ্যে পূর্বের একটা ঘটনায় মামলা হয়েছিল। সেই ঘটনার রেষ ধরে মারামারি হয়। তবে রিয়াজ উদ্দীনের পাঞ্জাবী ছেড়ার ঘটনাটি শুনেছি। অনেকে বলে নিজেই নিজের পাঞ্জাবি ছিড়েছে।
আমি সামনে থাকায় দেখতে পারিনি। মিছিলের পিছনে মারামারি হইছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. খোরশেদ আলম বলেন, আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর উপস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ এখন শান্ত আছে। ঘটনা শুনে তৎক্ষণিক আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই এবং এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।
উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে গত প্রায় ৯ বছরে ছাত্রলীগের কোনো কমিটি গঠন করা হয়নি। তবে ছাত্রলীগের ব্যানারে প্রায়ই ক্যাম্পাসে মিছিল ও সমাবেশ হয়।
ইমন-জিসান, আল আমিন- রিয়াজ ও রিদম রুম্মান নামে তিনটি গ্রুপের সদস্যরা নিজেদের ছাত্রলীগের নেতাকর্মী দাবি করে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করে আসছে। আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে আল আমিন- রিয়াজ ও রিদম-রুম্মান গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এর আগেও ওই দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।
এছাড়া বেশ কিছুদিন ধরে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামিম সমর্থিত রক্তিম নামে একটি গ্রুপও ক্যাম্পাসে সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তাদেরকেও আলাদা কর্মসূচি পালন করতে দেখা গেছে।
এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customize By Theme Park BD