1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
নতুন টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসানের নাম ঘোষণা - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০২:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বেইলি রোডসহ সব আবাসিক স্থাপনায় রেস্টুরেন্ট বন্ধ চেয়ে রিট মহিপুর মৎস্য আড়ৎ পট্টিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে,ফায়ার ফাইটারের মাথায় আঘাত গাইবান্ধার কাবিলের বাজার মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত। বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল আর নেই মেলায় ৬০ কোটি টাকার বই বিক্রি ডিসি সম্মেলন শুরু কাল কাল থেকে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৬৩ টাকায় বিক্রি হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির মামলা, চলবে নিউইয়র্ক আদালতে সশস্ত্র  বাহিনী শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে: প্রধানমন্ত্রী গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ, হত্যা না আত্মহত্যা

নতুন টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসানের নাম ঘোষণা

স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ২ জুন, ২০২২
দেশেরকথা

 145 বার পঠিত

বাংলাদেশ দলের নতুন টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসানের নাম ঘোষণা করেছে ক্রিকেট বোর্ড। সহ অধিনায়ক লিটন কুমার দাস।

আজ বৃহস্পতিবার (২ জুন) বোর্ডের দ্বিতীয় আনুষ্ঠানিক বৈঠক চলাকালে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পরিচালক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মুমিনুল হক টেস্ট অধিনায়কত্ব করতে চান না বলে জানানোর পরই আলোচনায় নতুন টেস্ট অধিনায়ক। যেখানে সবচেয়ে বেশি শোনা যাচ্ছিল সাকিবের নাম। তাকেই দায়িত্ব দিয়েছে বিসিবি। আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকেই তৃতীয় মেয়াদে টেস্ট অধিনায়কত্ব করতে যাচ্ছেন টাইগার অলরাউন্ডার।

২০১৯ সালে সাকিব নিষেধাজ্ঞায় পড়াতে হুট করেই টেস্ট অধিনায়কত্ব পান মুমিনুল হক। তার নেতৃত্বে মাউন্ট মঙ্গানুইতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট জয় ছাড়া নেই উল্লেখযোগ্য কোনো সাফল্য। বরং এই সময়ে ব্যাট হাতে ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে।

শ্রীলঙ্কা সিরিজের পরই তার জোর সমালোচনা শুরু। যার অবসান ঘটালেন নিজেই। গত ৩১ মে বিসিবি সভাপতিকে জানিয়ে দেন অধিনায়কত্ব আর করতে চান না। তার সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েই নতুন অধিনায়কের পথে হাঁটলো দেশের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

এর আগে সাকিব ২০০৯ সালে মাশরাফি বিন মর্তুজা চোটে পড়ায় প্রথমবার টেস্ট অধিনায়কত্ব পান। ওই মেয়াদে ২০১১ সাল পর্যন্ত ৯ টেস্টে নেতৃত্ব দিয়ে জেতেন একটিতে। এরপর ২০১৮ সালে মুশফিকুর রহিমের স্থলাভিষিক্ত হন টাইগার অলরাউন্ডার। ২০১৯ সালে নিষেধাজ্ঞায় পড়ার আগ পর্যন্ত নেতৃত্ব দেন আরও ৫ টেস্টে। যেখানে দল জয় পায় দুই ম্যাচে। সব মিলিয়ে আগের দুই মেয়াদে ১৪ টেস্টে ১১ হারের বিপিরীতে ৩ জয় সাকিবের।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park