1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
কিশোরগঞ্জে রসুনসহ রকমারি মসলা চাষে শাহজাহান আলীর দিন বদল - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাদুরতলা স্পোর্টিং ক্লাবের শুভ উদ্বোধন ঝালকাঠির বাসন্ডা ব্রীজটি বার্ধক্যের ভারে যেন মরন ফাঁদ সদরপুরে মৎস্য আইনে মোবাইল কোর্ট,বাধ সহ ২৭ টি চায়না দোয়ারি ধ্বংস  রায়পুরে ডাকাতিয়া নদী পরিস্কার কর্মসূচীর উদ্বোধন সদরপুরে ৪ কেজি গাঁজা সহ ব্যবসায়ী কে আটক করেছে ডি বি পুলিশ  চীনের সাথে ৭টি প্রকল্প ও ২১ একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করলেন প্রধানমন্ত্রী ঝালকাঠিতে মাছ ধরার ফাঁদ তৈরীতে ব্যস্ত কারিগররা। চীন সফর শেষে বুধবার দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশ্নফাঁস:পিএসসির ৩ কর্মকর্তাসহ ১০ জন কারাগারে কোটা নিয়ে সব পক্ষের বক্তব্য শুনে ন্যায়বিচার করবে আদালত: আইনমন্ত্রী

কিশোরগঞ্জে রসুনসহ রকমারি মসলা চাষে শাহজাহান আলীর দিন বদল

আনোয়ার হোসেন
  • প্রকাশ শনিবার, ৬ এপ্রিল, ২০২৪

 70 বার পঠিত

রন্ধনশালায় খাবারের স্বাদ বাড়াতে অন্যান্য মসলার পাশাপাশি রসুন,পেঁয়াজ ও আদার জুড়ি নেই।এসব মসলার চাহিদার তুলনায় উৎপাদন অনেক কম।এতে ঘাটতি মেটাতে,মোট অংকের টাকা ব্যয় করে আমদানি করতে হয় বাইরের দেশ থেকে।

পাশাপাশি সময়-অসময়ে গুনতে হয় অগ্নি বাজার মূল্য।এ থেকে উত্তোরণে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে শাহাজাহান আলী নামে এক শিক্ষিত বেকার যুবক,স্থানীয় চাহিদা মিটানোসহ আমদানি বানিজ্যের উপর চাপ কমাতে ও দেশের টাকা দেশে রাখতে সাদা কাঁচা সোনা খ্যাত রসুন,পেঁয়াজ ও আদা চাষে ঝুঁকে পড়েছেন।

তিনি লেখাপড়ার পাঠ চুকিয়ে চাকরি নামের সোনার হরিণের পিছনে না ছুটে ওইসব মসলা চাষের নেশায় ও পেশায় মত্ব হয়ে পড়েন।শুধু এতেই নয়,বিএসসি পাস এ কৃষি উদ্যোক্তা গনিতের সূত্রকে কাজে লাগিয়ে এক ঢিলে মারছেন দুই পাখি।

এক ঢিলে দুই পাখি মারার অর্থ হচ্ছে এক কৌশলে দুই উদ্দেশ্য সাধন করা।যা একই খরচে আদার জমিতে সাথী ফসল হিসেবে চাষাবাদ করছেন হলুদ,বেগুন,ঝিঙ্গা,কাঁচা মরিচ,করলা,শিমসহ রকমারী সবজি ও কলার নিচে পেঁয়াজ চাষ।যা বিগত কয়েক বছর ধরে উৎপাদিত মসলাদির বাম্পার ফলন ও কাক্ষিত বাজার মূল্য পেয়ে প্রতি মৌসুমে কম বেশি অর্ধকোটি টাকা আয় করেন।

এ আয়ে তিনি দিন বদল করে ফেলেছেন।অর্থনৈতিকভাবে হয়ে উঠেছেন স্বাবলম্বী।কাঁচা বাড়ির স্থলে গড়ে তুলেছেন ইট-পাথরের অবকাঠামো।কিনেছেন কয়েক বিঘা জমি ও মোটর সাইকেল।ছেলে-মেয়েদের লেখা-পড়ার খরচ চালাচ্ছেন দিব্বি।এ কৃষি উদ্যোক্তা মাগুড়া মাষ্টার পাড়া গ্রামর বাসিন্দা।

সরেজমিনে মাগুড়া মিয়া পাড়া ব্লকে গিয়ে কথা হয় শাহজাহান আলীর সাথে।তিনি জানান,বিগত কয়েক বছরের নেয় গেলবার ৪ বিঘা(১২০শতাংশ)জমির বুননকৃত রসুন ১ লাখ টাকা খরচ করে সাড়ে ১২হাজার টাকা মন দরে ৩৭ লাখ টাকা বিক্রি করেন।খরচ বাদে ৩৬ লাখ টাকা আয় করেন।এমন সফলতায় চলতি মৌসুমে সাড়ে ৫ বিঘা (১৬৫ শতাংশ)জমিতে রসুন বুনেন।বর্তমানে সেই রসুন উত্তোলন করে বাড়িতে সংরক্ষণ করেন।আনুমানিক প্রতি বিঘায় ফলন পাবেন ৭৫থেকে ৮০মন।

ওই পরিমান জমিতে উৎপাদন খরচ দাঁড়ায় ২লাখ টাকা।খরচ বাদে ৪০লাখ,৩৩ শতাংশ চাষযোগ্য ও কলার নিচে সাথী ফসল পেঁয়াজে দেড় লাখ,৪৫শতাংশ জমিতে আদায় খরচবাদে ৭লাখ,একই(আদার)জমিতে সাথী ফসল বেগুনে ২লাখ,হলুদে ৮০হাজার,কাঁচা মরিচ ও অন্য সবজিতে ২৫থেকে ৩০হাজারসহ সব মিলে অর্ধকোটিরও বেশি টাকা আয় হবে এমন আশা তার।

এমন সফলতা দেখে অন্য কৃষকরা রসুন,পেঁয়াজ ও আদা চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন।উপজেলা কৃষি অফিসার লোকমান আলম বলেন,চলতি বছর রসুন ৬৮হেক্টর,পেঁয়াজ ৯৮হেক্টর জমিতে চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।শাহজাহান আলী একজন অগ্রগামী কৃষক।তিনি কৃষি অফিস থেকে মসলা চাষে প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশিক্ষণ গ্রহন করে প্রতি বছর রসুন,পেঁয়াজ,আদা ও সাথী ফসল চাষ করে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছেন।

তার উৎপাদিত রসুন,পেঁয়াজ,আদা স্থানী চাহিদা মিটিয়ে বিভিন্ন জেলা শহরে সরবরাহ করে থাকেন।এর মধ্যে দিয়ে এক দিকে যেমন আমদানি নির্ভরতা কমছে অন্য দিকে তিনি আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন।চাষাবাদে মাঠ পর্যায়ে স্বার্বিক পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park