1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanhrd74@gmail.com : desher kotha : desher kotha
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত - দৈনিক দেশেরকথা
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০২:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বেইলি রোডসহ সব আবাসিক স্থাপনায় রেস্টুরেন্ট বন্ধ চেয়ে রিট মহিপুর মৎস্য আড়ৎ পট্টিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে,ফায়ার ফাইটারের মাথায় আঘাত গাইবান্ধার কাবিলের বাজার মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত। বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল আর নেই মেলায় ৬০ কোটি টাকার বই বিক্রি ডিসি সম্মেলন শুরু কাল কাল থেকে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৬৩ টাকায় বিক্রি হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির মামলা, চলবে নিউইয়র্ক আদালতে সশস্ত্র  বাহিনী শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রেখে সুনাম বয়ে আনছে: প্রধানমন্ত্রী গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ, হত্যা না আত্মহত্যা

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত

রিদুয়ান ইসলাম
  • প্রকাশ শনিবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২২

 105 বার পঠিত

জবি প্রতিনিধি>জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নতুন করে সাতজন শিক্ষার্থীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ  বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে এই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের চারজন এবং তৃতীয় বর্ষের তিনজন বলে জানা যায়।
শনিবার (১৫ জানুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আইনুল ইসলাম।
ছাত্রকল্যাণ পরিচালক বলেন, ‘এখন পর্যন্ত প্রাণরসায়ন বিভাগের মোট সাতজন শিক্ষার্থীর  করোনা শনাক্ত হয়েছে। বিভাগের বাকি শিক্ষার্থীদের করোনা পরীক্ষা করার জন্য বলা হয়েছে।’
এবিষয়ে প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. লাইসা আহমেদ লিসা বলেন, ‘গত সপ্তাহে বিভাগের দ্বিতীয় ব্যাচের পরীক্ষা শুরু করার কথা ছিল। তখন ওদের একজন রিপোর্ট করলো যে, এক শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত। অন্যরাও অসুস্থবোধ করছিল। পরীক্ষাও পিছিয়ে নেওয়া হয়েছিল। সব ব্যাচকে টেস্ট করাতে বললাম। এরমধ্যে মিটিং করে উপাচার্য স্যারের সঙ্গে আলাপ করলে যেহেতু রসায়নেও আক্রান্ত হয়েছে তখন স্যার বললেন, যারা করোনা পজিটিভ হবে তাঁদের জন্য পরীক্ষার আলাদা ব্যবস্থা করতে আর যারা আক্রান্ত হয়নি তাঁদের পরীক্ষা চালিয়ে যাওয়ার জন্য। গতকাল চতুর্থ ব্যাচের একটা পরীক্ষা ছিল, তবে তাঁদের সবার টেস্ট না হওয়ায় পরীক্ষা পিছিয়েছি।’
লাইসা আহমেদ লিসা আরও বলেন, ‘রসায়ন বিভাগ সহ অনেক বিভাগেই এরকম ধরা পড়ছে। তাঁদের খবর হয়ত আসছে না। কিন্তু সবাই এ ব্যবস্থাপনায় যাচ্ছে। কি করবে? কারণ দুইজনের জন্য বাকি চল্লিশ জনের তো বন্ধ করা সম্ভব হচ্ছে না।
আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘যখন পরীক্ষা শেষ হয়ে যাবে তখন তাঁদের জন্য স্পেশালভাবে প্রশ্ন প্রণয়ন করে আবার পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২২-২০২৩ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park