বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জামালপুর রেজাল্ট নিয়ে বাড়ি ফেরা হলোনা সমৃদ্ধির কিশোরগঞ্জে টুংটাং শব্দে সরগরম হয়ে উঠেছে কামারপল্লী ফের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কোনো পরিকল্পনা নেই ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর কন্যাকে কটুক্তি করা সেই যুবক রনি রিমাণ্ডে সুন্দরগঞ্জে মাদক দ্রব্য রোধকল্পে কর্মশালা পিরোজপুরে ৬ জন সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারীদের শুদ্ধাচার পুরস্কারের চেক তুলে দেন জেলা প্রশাসন মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফের চাল বিতরণ মতলব উত্তরে মহিলা যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা র‍্যালি ও আলোচনা সভা রেওলয়েতে আউটসোর্সিংয়ে জনবল নিয়োগের প্রতিবাদে ঈশ্বরদীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন পাবনার ঈশ্বরদীতে ‘পাগলা রাজা’ বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় রেজাউল

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত

রিদুয়ান ইসলাম
  • প্রকাশ শনিবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২২
  • ৭০ বার-পাঠিত
জবি প্রতিনিধি>জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নতুন করে সাতজন শিক্ষার্থীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ  বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে এই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের চারজন এবং তৃতীয় বর্ষের তিনজন বলে জানা যায়।
শনিবার (১৫ জানুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আইনুল ইসলাম।
ছাত্রকল্যাণ পরিচালক বলেন, ‘এখন পর্যন্ত প্রাণরসায়ন বিভাগের মোট সাতজন শিক্ষার্থীর  করোনা শনাক্ত হয়েছে। বিভাগের বাকি শিক্ষার্থীদের করোনা পরীক্ষা করার জন্য বলা হয়েছে।’
এবিষয়ে প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. লাইসা আহমেদ লিসা বলেন, ‘গত সপ্তাহে বিভাগের দ্বিতীয় ব্যাচের পরীক্ষা শুরু করার কথা ছিল। তখন ওদের একজন রিপোর্ট করলো যে, এক শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত। অন্যরাও অসুস্থবোধ করছিল। পরীক্ষাও পিছিয়ে নেওয়া হয়েছিল। সব ব্যাচকে টেস্ট করাতে বললাম। এরমধ্যে মিটিং করে উপাচার্য স্যারের সঙ্গে আলাপ করলে যেহেতু রসায়নেও আক্রান্ত হয়েছে তখন স্যার বললেন, যারা করোনা পজিটিভ হবে তাঁদের জন্য পরীক্ষার আলাদা ব্যবস্থা করতে আর যারা আক্রান্ত হয়নি তাঁদের পরীক্ষা চালিয়ে যাওয়ার জন্য। গতকাল চতুর্থ ব্যাচের একটা পরীক্ষা ছিল, তবে তাঁদের সবার টেস্ট না হওয়ায় পরীক্ষা পিছিয়েছি।’
লাইসা আহমেদ লিসা আরও বলেন, ‘রসায়ন বিভাগ সহ অনেক বিভাগেই এরকম ধরা পড়ছে। তাঁদের খবর হয়ত আসছে না। কিন্তু সবাই এ ব্যবস্থাপনায় যাচ্ছে। কি করবে? কারণ দুইজনের জন্য বাকি চল্লিশ জনের তো বন্ধ করা সম্ভব হচ্ছে না।
আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘যখন পরীক্ষা শেষ হয়ে যাবে তখন তাঁদের জন্য স্পেশালভাবে প্রশ্ন প্রণয়ন করে আবার পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD