1. admin@daynikdesherkotha.com : Desher Kotha : Daynik DesherKotha
  2. arifkhanjkt74@gamil.com : arif khanh : arif khanh
ইবিতে খেলাকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় মারামারি হয়েছে - দৈনিক দেশেরকথা
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৮:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আমার বিশ্বাস তারা ন্যায়বিচার পাবে, হতাশ হতে হবে না,জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীরা কোথাও আগুন কিংবা ভাঙচুর করেনি: ডিবিপ্রধান চলমান কোটা সংস্কার আন্দোলনের বিষয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উলিপুরে আলোকিত শিশু কন্ঠ পরিষদের আয়োজনে পবিত্র  আশুরা পালিত পবিত্র আশুরা উপলক্ষে বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ ছারছীনার পীর সাহেব হুজুর আর নেই দেশের সব স্কুল-কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা নলডাঙ্গায় ১১ অসহায় পরিবারের মাঝে চেক ও ঢেউটিন বিতরন বাদুরতলা স্পোর্টিং ক্লাবের শুভ উদ্বোধন ঝালকাঠির বাসন্ডা ব্রীজটি বার্ধক্যের ভারে যেন মরন ফাঁদ

ইবিতে খেলাকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় মারামারি হয়েছে

দেশেরকথা ডেস্ক
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০২৩

 128 বার পঠিত

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থীদের দুই গ্রুপের মধ্যে অন্তত চার দফায় মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন দুই গ্রুপের অন্তত ৭ জন শিক্ষার্থী। 

আজ মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুটবল মাঠে ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে প্রীতি ফুটবল ম্যাচের আয়োজন করা হয়। এসময় ফুটবল মাঠের পাশে একদল শিক্ষার্থী ক্রিকেট খেলছিলেন। দুইপক্ষের বলকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ হয়। এসময় এলোপাতাড়ি লাঠির আঘাতে উভয়পক্ষের অন্তত ৭জন আহত হয়।

আহতদের বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এ ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ  মোতায়েন করা হয়েছে।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডি ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সেখানে উপস্থিত হলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

গুরুতর আহত মার্কেটিং বিভাগের তুর্য খান। আহতরা হলেন- সাফি, সিয়াম, ইসলামের ইতিহাস বিভাগের জিয়ন সরকার, কবির হোসাইন, ল এন্ড ল্যান্ড ম্যানেজমেন্টের বিজন রয়, ফাইন্যান্স এন্ড ব্যাংকিংয়ের জাকির হোসেন। 

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. শাহাদাৎ হোসেন আজাদ বলেন, ‘আমরা বিষয়টি জানতে পেরে  পুলিশ পাঠিয়েছি। আবাসিক হলগুলোর এলাকায় অতিরিক্ত পুল মোতায়েন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আননূর যায়েদ বলেন, ‘মারামারি ঘটনার পর প্রক্টরের ফোন পেয়ে মেডিকেলে গিয়েছিলাম। কিছু শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। আবাসিক হল এলাকাজুড়ে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্রের চিকিৎসক ডা. খুরশিদা জাহান বলেন, মেডিকেলে পাঁচজন এসেছিল। আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছি। এরমধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কা জনক। অন্য বিজন রয়কে পরে কুষ্টিয়া পাঠানো হয়েছে।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২৪ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park