শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজাপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে অসহায় ও দুঃস্থ মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হবিগঞ্জে মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে ফুঁসে উঠেছে চা-শ্রমিকরা থেকে অনির্দিষ্ট কালের কর্মবিরতি। কটিয়াদীতে নববধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধু কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে মাধবপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যা কুয়াকাটায় বাস ড্রাইভারকে ১০ হাজার টাকা জরিমান। নিপা অপহরণ ও হত্যার চেষ্টা মামলার আসামিদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সুন্দরগঞ্জে ছাদ বাগান  উদ্বোধনে জেলা প্রশাসক.. সুন্দরগঞ্জে লোডশেডিং ১৩ ঘন্টা অবৈধ পল্লী চিকিৎসক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সিলগালা ও পরিচালক কে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা।

আমাদের শিক্ষকরা আজ জীবন্ত লাশ, নেই স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি।

দেশেরকথা
  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ২৮ জুন, ২০২২
  • ১৬১ বার-পাঠিত

আমাদের শিক্ষকরা আজ জীবন্ত লাশ, নেই স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি। শিক্ষরা দিনের পর দিন শুধু অবহেলিত, লাঞ্চিত, বঞ্চিত আর প্রতারিতই হচ্ছি না, সবশেষ নিরাপদ মৃত্যুওটা নিয়েও প্রতিনিয়ত শঙ্কিত থাকি।

আমাদের সন্তান তুল্য ছাত্রদেরকে কি শিক্ষা দিয়েছি আমরা? কি শিক্ষা দিচ্ছি আমরা? কি হবে জিপিএ কিংবা সিজিপিএ দিয়ে? কি হবে নতুন নতুন শিক্ষানীতি ও পাঠ্যক্রম দিয়ে?

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সুধীমহলের মতে যতদিন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ছাত্রদেরকে নিজেদের স্বার্থে ভি আই পি মর্যাদা দিয়ে প্রভাবশালী তৈরি করে গুরুত্বের সাথে মর্যাদা দেবেন, ছাত্রজীবনেই তাদের কোটি টাকার মালিক বানিয়ে দেবেন এবং শিক্ষকদের তৃতীয় শ্রেণির নাগরিক মনে করে তাদের নিরীহ প্রাণীর মতো অসহায় করে রাখবেন ততদিন সুশিক্ষিত জাতি ও মেধাবী বাংলাদেশ গড়া সম্ভব নয়।

একদিকে অধ্যক্ষের গলায় জুতার মালা, অন্যদিকে ছাত্রের হাতে শিক্ষকের মৃত্যু! এছাড়া শিক্ষকদের কানধরে ওঠবস করানো, মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত করা, বাড়িঘড় ভেঙ্গে গৃহহীন করা সহ বিভিন্ন অত্যাচার আমরা শিক্ষক সমাজ সহ্য করে যাচ্ছি। এরকম ব্যবস্থা ও পরিস্থিতিতে শিক্ষরা প্রতিবাদ করার সাহস, ভাষা ও শক্তিও হারিয়ে ফেলেছে!

আজ কোথায় আমাদের শিক্ষক ফোরাম? কোথায় আমাদের শিক্ষক সংগঠন? এই ঘটনার পরেও যদি জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে না পারেন তবে নিশ্চিত থাকেন আপনার আমার জন্যও এই দিনটি অতি সন্নিকটে।

আজ আমাদের যুবসমাজ ও ছাত্রসমাজের অনেক মেধাবী সন্তানদের মনুষ্যত্বকে মাদক হত্যা করে ফেলেছে! এই মাদক কোথা থেকে আসছে? কারা তাদের হাতে তুলে দিচ্ছে? কি তাদের উদ্দেশ্য? কোন গোষ্ঠী বাংলাদেশকে মেধা শূন্য বাংলাদেশে পরিনত করতে চায়? আজকে শিক্ষকদের পাশে ছাত্র অভিভাবক সহ সমাজের সকল শ্রেণী পেশার মানুষদের এগিয়ে আসতে হবে। নতুবা আমরা সমাজের বোঝা ছাড়া কিছুই উপহার দিতে পারবো না!

যতদিন শিক্ষক সমাজ জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে না পারবো, যতদিন ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদ করতে না পারবো, যতদিন উগ্র বা মাস্তান টাইপের ছাত্রদের কাউন্সিলিং এর মাধ্যমে সঠিক পথে ফেরানো না যাবে, যতদিন ছাত্রদের ধর্মীয়, মানবিক ও সামাজিক শিক্ষায় সু- শিক্ষিত করতে না পারবো ততদিন আমাদের শিক্ষকদের প্রতিনিয়ত লাঞ্চিত হতে হবে।

একজন পরিবহন শ্রমিক ভাই হত্যা হলে বা দূর্ঘটনায় মারা গেলে দেশের সমগ্র পরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়, হাসপাতালগুলোতে মহান পেশার ডাক্তার কিংবা নার্সদের সাথে উচ্চস্বরে কথা বললেও তারা কর্মবিরতিতে চলে যান, সাংবাদিকদ ভাইরা লাঞ্চিত বা মামলার আসামি হলেও দেশ উত্তাল হয়ে যায় কিন্তু বাংলাদেশে শিক্ষকের মত মহান পেশায় নিয়োজিত অসহায় নিরীহ মানুষদের হত্যা করা হলেও শিক্ষররা সমগ্র দেশে একযোগে প্রতিবাদ করতে পারেন না! একযোগে মানববন্ধন করতে পারেন না! একযোগে কর্মবিরতিতে যেতে পারেন না! একসাথে দেশের সকল প্রতিষ্ঠানে তালা লাগাতে পারেন না! কারণ বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও শিক্ষকরা সেই ব্রিটিশ শাসনামলের মতোই জিন্দা লাশ হয়ে আছে।

লেখকঃ আমিনুর রহমান শামীম, (সহকারী অধ্যাপক)
যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ, বরিশাল।

দেশেরকথা/বাংলাদেশ

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

এই সাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।কপিরাইট @২০২০-২০২১ দৈনিক দেশেরকথা কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By Theme Park BD